Mir cement
logo
  • ঢাকা রোববার, ২২ মে ২০২২, ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯

বান্দরবান প্রতিনিধি, আরটিভি নিউজ

  ১০ জানুয়ারি ২০২২, ১৫:১৪
আপডেট : ১০ জানুয়ারি ২০২২, ১৫:১৯

ঝগড়ার পর স্ত্রীকে হত্যায় স্বামীর যাবজ্জীবন

ঝগড়ার পর স্ত্রীকে হত্যায় স্বামীর যাবজ্জীবন
দণ্ডপ্রাপ্ত ব্যক্তি

বান্দরবানে পারিবারিক কলহের পর স্ত্রী মনোয়ারা বেগমকে হত্যার দায়ে মো. আবুল কালাম (৪৫) নামে এক যুবককে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। এ ছাড়াও ৫০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড অনাদায়ে আরও ছয় মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ডের আদেশ দেওয়া হয়।

সোমবার (১০ জানুয়ারি) জেলা ও দায়রা জজ এহসানুল হকের আদালত এ রায় দেন।

দণ্ডপ্রাপ্ত ব্যক্তি নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার ৩নং ঘুমধুম ইউনিয়নের বাইশফাঁড়ি ঠাণ্ডা ঝিরি ৩নং ওয়ার্ডের মৃত মকবুল আলীর ছেলে মো. আবুল কালাম (৪৫)। তার স্ত্রী মনোয়ারা বেগম একই এলাকার মো. সৈয়দ আলমের মেয়ে।

আদালত সূত্রে জানা যায়, ২০১৩ সালে ১৭ মার্চ সকালে মো. আবুল কালাম নিজ বসতবাড়িতে পারিবারিক কলহের জেরে তার দ্বিতীয় স্ত্রী মনোয়ারা বেগমকে লাঠি দিয়ে মাথায় সজোরে আঘাত করে হত্যার পর পালিয়ে যান। এ ঘটনায় ১৭ মার্চ নিহত মনোয়ারা বেগমের বাবা সৈয়দ আলম বাদী হয়ে জামাতা আবুল কালামের বিরুদ্ধে নাইক্ষ্যংছড়ি থানায় এজাহার দায়ের করলে পুলিশ ২০১৪ সালের ১৫ অক্টোবর আবুল কালামকে অভিযুক্ত করে চূড়ান্ত প্রতিদেন দাখিল করে।

আসামি মামলার শুরু থেকে পলাতক থাকায় আদালত কর্তৃক আসামির জন্য এসডিএল নিয়োগ করা হয়। আদালত ১১ জন সাক্ষীর সাক্ষ্য গ্রহণের পর মামলার যুক্তিতর্ক শুনানির জন্য দিন ধার্য করেন। পরে আসামি মামলার যুক্তিতর্ক শুনানির পর্যায়ে ৩ নভেম্বর আদালতে স্বেচ্ছায় আত্মসমর্পণ করে জামিনের প্রার্থনা করেন। পরে আদালত জামিন নামঞ্জুর করে জেলহাজতে প্রেরণ করেন। আসামিপক্ষ থেকে এ মামলায় ৪ জন সাফাই সাক্ষীকে পরীক্ষা করার পর আদালত এ রায় দেন।

বান্দরবান জেলা ও দায়রা জজ আদালতের প্রশাসনিক কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) বেদারুল আলম জানান, রায় ঘোষণার সময় আসামি মো. আবুল কালাম আদালতে উপস্থিত ছিলেন।

জিএম/টিআই

মন্তব্য করুন

RTV Drama
RTVPLUS