Mir cement
logo
  • ঢাকা রোববার, ২২ মে ২০২২, ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯

নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতা,নবনির্বাচিত চেয়ারম্যানসহ পরাজিত প্রার্থী গ্রেপ্তার

নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতা,নবনির্বাচিত চেয়ারম্যানসহ পরাজিত প্রার্থী গ্রেপ্তার

সাতক্ষীরার আশাশুনি উপজেলার খাজরা ইউনিয়নে নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতার ঘটনায় থানায় পাল্টাপাল্টি মামলা হয়েছে।মামলার আসামি নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান শাহনেওয়াজ ডালিম ও পরাজিত প্রার্থী ওহিদুল ইসলামসহ ৬ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার (৬ জানুয়ারি) মধ্যরাতে তাদেরকে গদাইপুর,খাজরাসহ বিভিন্ন এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেপ্তারকৃত অন্যরা হলেন, সাবেক চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা রুহুল কুদ্দুস,গোলাম মোস্তফা মোস্তাকিন মোল্যা ও গোলাম রাব্বি।

স্থানীয় সূত্র জানায়, বুধবার শান্তিপূর্ণভাবে নির্বাচন শেষ হবার পর খাজরা ইউনিয়নে বৃহস্পতিবার সকালে সহিংসতার ঘটনা ঘটে। এ সময় পরাজিত প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী ওহিদুল ইসলামের বাড়ির ছাদের ওপর থেকে নব নির্বাচিত চেয়ারম্যান শাহনেওয়াজ ডালিম ও তার সহযোগীদের ওপর গুলিবর্ষণ করা হয়। এতে ১০ জন গুলিবিদ্ধসহ কমপক্ষে ২০ জন আহত হয়।

এ ঘটনায় বিক্ষুব্ধ জনতা ওহিদুলের বাড়িতে ইটপাটকেল নিক্ষেপ করতে থাকে। পরে পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

তবে অভিযোগ অস্বীকার করে ওহিদুল ইসলাম জানিয়েছেন,তার বাড়িতে হামলা করেছিল ডালিমের কর্মী-সমর্থকরা। আত্মরক্ষার্থে তিনি গুলি করতে বাধ্য হয়েছিলেন।

আশাশুনি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) গোলাম কবির জানান, এ ঘটনায় শাহনেওয়াজ ডালিম তার প্রতিদ্বন্দ্বী ওহিদুল ইসলামসহ ১৬ জনের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন।

অপরদিকে, ওহিদুল ইসলামের প্রধান নির্বাচনী এজেন্ট সাবেক চেয়ারম্যান রুহুল কুদ্দুস বাদী হয়ে নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান শাহনেওয়াজ ডালিমসহ ১৫ জনের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন।

এই দুই মামলায় নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান শাহনেওয়াজ ডালিম ও তার প্রতিদ্বন্দ্বী পরাজিত প্রার্থী ওহিদুল ইসলামসহ মোট ৬ জনকে বৃহস্পতিবার রাতে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

ওসি আরও জানান, শুক্রবার দুপুরে তাদেরকে সাতক্ষীরা আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।

এমএন

মন্তব্য করুন

RTV Drama
RTVPLUS