Mir cement
logo
  • ঢাকা সোমবার, ১৬ মে ২০২২, ২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯

চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি, আরটিভি নিউজ

  ০২ ডিসেম্বর ২০২১, ০৯:০২
আপডেট : ০২ ডিসেম্বর ২০২১, ০৯:২০

চুয়াডাঙ্গায় পরাজিত স্বতন্ত্র প্রার্থীর ওপর হামলার অভিযোগ

চুয়াডাঙ্গায় পরাজিত স্বতন্ত্র প্রার্থীর ওপর হামলা
ঘটনাস্থলের চিত্র

চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গায় নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতার ঘটনা ঘটেছে। এক স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থীকে বেধড়ক মারধর করার অভিযোগ উঠেছে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থীর (নৌকা) বিরুদ্ধে।

বুধবার (১ ডিসেম্বর) সন্ধ্যা ৭টার দিকে আলমডাঙ্গা উপজেলার ডাউকি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

আহত নাজমুল হোসাইন আলমডাঙ্গা উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক। তিনি তৃতীয় ধাপে ডাউকি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী ছিলেন।

আহত পুলিশ সদস্যরা হলেন, আলমডাঙ্গা থানার পরিদর্শক (অপারেশন) মাহবুব হোসেন, উপ-পরিদর্শক (এসআই) শরিফুল ইসলাম, কনস্টেবল শাওন ও মামুন।

জানা গেছে, বুধবার (১ ডিসেম্বর) ওই ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছে আহত স্বতন্ত্র প্রার্থী নাজমুল হোসাইনকে উদ্ধার করে আলমডাঙ্গা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয় পুলিশ। এ সময় পুলিশের ওপর হামলা চালিয়ে দুটি মোটরসাইকেল ও অজ্ঞাতনামা ব্যক্তির একটি মোটরসাইকেল ভাঙচুর করে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থীর (নৌকা) সমর্থকরা। এতে আহত হন পুলিশের এক পরিদর্শকসহ ৪ জন। পরে আহত নাজমুল হোসাইনের শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করেন জরুরি বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক। এদিকে নাজমুল হোসাইনের ওপর অতর্কিত হামলার প্রতিবাদে বিক্ষোভ ও প্রতিবাদ সভা করেছে আলমডাঙ্গা উপজেলা আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগ। এ সময় আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী (নৌকা) তরিকুল ইসলামকে গ্রেপ্তারে ২৪ ঘণ্টার আল্টিমেটাম দেওয়া হয়। ওই বিক্ষোভ সমাবেশের মধ্যে পাল্টা বিক্ষোভ করতে গেলে চেয়ারম্যান তরিকুল লোকজনের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ হয়। এ সময় তরিকুলের বিক্ষুব্ধ সমর্থকরা পুলিশর দুটি মোটরসাইকেল ভাঙচুর করেছে।

আলমডাঙ্গা উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের আহবায়ক শরিফুল ইসলাম রিফাত আরটিভি নিউজকে জানান, আলমডাঙ্গা উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও ডাউকি ইউনিয়নের স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী নাজমুল হোসাইনকে মারধর করেছে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী (নৌকা) বিজয়ী চেয়ারম্যান তরিকুল ইসলাম।

তিনি জানান, বুধবার সন্ধ্যায় লাঠিসোটা দিয়ে বেধড়ক মারপিট করে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী (নৌকা) বিজয়ী চেয়ারম্যান তরিকুল ইসলামসহ তার কর্মীরা। পরে তাকে উদ্ধার করে আলমডাঙ্গা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয় পুলিশ।

এ বিষয়ে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থীর সঙ্গে মোবাইলে যোগাযোগ করা হলে তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

আলমডাঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাইফুল ইসলাম জানান, বিষয়টি জানতে পেরে ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে পুলিশ। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে মোতায়েন করা হয়েছে অতিরিক্ত পুলিশ। এ ঘটনায় আইনগত বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

জিএম/এসকে

মন্তব্য করুন

RTV Drama
RTVPLUS