Mir cement
logo
  • ঢাকা সোমবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০২১, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৮

নীলফামারীর গ্রামাঞ্চলের শিক্ষার্থীরা মানসম্মত শিক্ষা থেকে বঞ্চিত

নীলফামারীর গ্রামাঞ্চলের শিক্ষার্থীরা মানসম্মত শিক্ষা থেকে বঞ্চিত
ফাইল ছবি

নীলফামারীর গ্রামাঞ্চলের স্কুলগুলোতে মানসম্মত পরিবেশের অভাবে ভেঙে পড়েছে শিক্ষা ব্যবস্থা। জরাজীর্ণ ভবন, শিক্ষা উপকরণের অভাব, অনিরাপদ পানি ব্যবস্থা, অস্বাস্থ্যকর পরিবেশ, ভাঙাচোরা ক্লাসরুম ও বেঞ্চ, অনুন্নত যোগাযোগ ব্যবস্থাসহ রয়েছে হাজারো সমস্যা। ফলে পিছিয়ে পড়ছে তৃণমূলের প্রায় ৯৫ ভাগ শিক্ষার্থী। এ অবস্থায় মানসম্মত শিক্ষার পরিবেশ নিশ্চিতে দ্রুত পদক্ষেপ নেওয়ার দাবি উঠেছে।

এদিকে নীলফামারীর ডিমলা উপজেলার টেপা খড়িবাড়ী দুই নম্বর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ভবনটি হেলে গিয়ে ধরেছে অসংখ্য ফাটল। খুলে পড়েছে পলেস্তারা। একই সঙ্গে দেবে গেছে মেঝেও। খুলছে না শ্রেণিকক্ষের দরজা-জানালা। এ অবস্থায় ভবনের নিচতলায় জীবনের ঝুঁকি নিয়ে চলছে প্রায় দেড়শ’ শিক্ষার্থীর পাঠদান।

এমন ভয়াবহ চিত্র নীলফমারীর গ্রামাঞ্চলের বেশির ভাগ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের। এতে দুঃশ্চিন্তার ভাঁজ শিক্ষক-শিক্ষার্থীসহ অভিভাবকদের কপালে। নীলফামারীর ছয় উপজেলার ১ হাজার ৮৪টি বিদ্যালয়ের মধ্যে চরাঞ্চলসহ তৃণমূল পর্যায়ের বিদ্যালয়গুলোর নানান সংকটে রয়েছে।

ডাঙ্গা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক হাসিম উল ফারুক জানান, স্থানীয় শিক্ষক ছাড়া চরাঞ্চলের বিদ্যালয়গুলোতে দূরের শিক্ষকরা যেতে চায় না। তাদের জন্য আবাসন ব্যবস্থার ব্যবস্থা ও হাওড় এলাকার মতো চরাঞ্চল ভাতা দেওয়া হলে দূরের শিক্ষকরা উৎসাহী হয়ে উঠবে। এতে মানসম্মত শিক্ষা নিশ্চিতে আর কোনো অন্তরায় থাকবে না। নীলফামারী জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা নবেজ উদ্দীন সরকার বলেন, নীলফামারীর ৬ উপজেলার ১ হাজার ৮৪টি বিদ্যালয়ের মধ্যে চরাঞ্চলসহ তৃণমূল পর্যায়ের বিদ্যালয়গুলোতে রয়েছে নানান সংকট। বিশেষ করে অভিভাবকদের সচেতনতার অভাব, মানসম্মত অবকাঠামো, শিক্ষক স্বল্পতা ও যোগাযোগ ব্যবস্থা অন্যতম। এ সব সমস্যা সমাধান হলে শিক্ষা ক্ষেত্রে ফিরে আসবে সমতা।

জিএম/টিআই

মন্তব্য করুন

RTV Drama
RTVPLUS