Mir cement
logo
  • ঢাকা সোমবার, ২৯ নভেম্বর ২০২১, ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৮

বরগুনা প্রতিনিধি, আরটিভি নিউজ

  ২৫ অক্টোবর ২০২১, ২২:১০
আপডেট : ২৫ অক্টোবর ২০২১, ২২:৩৮

রাতেই সাগরে যাবে জেলেরা

রাতেই সাগরে যাবে জেলেরা
জেলে পল্লীতে আনন্দ -উৎসবের আমেজ

উপকূলীয় জেলা বরগুনা সদর, পাথরঘাটা ও তালতলীর জেলে পল্লীতে আনন্দ-উৎসবের আমেজ বইছে। দীর্ঘ ২২ দিন অবরোধের পর সোমবার (২৫ অক্টোবর) মধ্যরাতে গভীর সমুদ্রে যাত্রা শুরু করবে তারা। স্বপ্ন দেখছে জেলেরা জালে মিলবে ঝাঁকেঝাঁকে রূপালি ইলিশ। ইতোমধ্যে সকল ধরনের প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে তারা।প্রাণচাঞ্চল্য হয়ে উঠছে বরগুনা উপজেলার নিশানবাড়ীয়া, বালিয়াতলী, চালিতাতলী, নলি, গোলবুনিয়া, লতাকাটা, পাথরঘাটার, পদ্মা, রুহিতা, চরদুয়ানী, চরলাঠিমারা, বিএফডিসি মৎস্য অবতরণ কেন্দ্র, তালতলী উপজেলার তেতুলবাড়িয়া ফকির হাট নিদ্রা, সখিনাসহ জেলে পল্লী এলাকায়।

নিষেধাজ্ঞা চলাকালীন সাগর ও নদীতে মৎস্য বিভাগের নেতৃত্বে ৩৬৫টি অভিযান পরিচালিত হয়। এ সময় ৩৯টি মামলায় ১৮ জন জেলেকে ২০ দিন করে কারাদণ্ড ৪ লাখ ৯৫ হাজার মিটার জাল উদ্ধার করে পুড়িয়ে ফেলা হয়েছে।

স্থানীয় ব্যবসায়ী ও জেলেদের সূত্রে জানা গেছে, মা ইলিশের প্রজনন নিরাপদ করতে গত ইলিশের প্রধান প্রজনন মৌসুম ৪ থেকে ২৫ অক্টোবর মধ্যরাত পর্যন্ত সারাদেশে ইলিশ আহরণ, পরিবহন, মজুত, বাজারজাতকরণ, ক্রয়-বিক্রয় ও বিনিময় নিষেধাজ্ঞা জারি করে সরকার।

নিষেধাজ্ঞা চলাকালীন সময় সাগর কিংবা নদীতে কোন জেলেরা মাছ শিকার করেনি।

তালতলীর তেতুল বাড়িয়া এলাকার আনোয়ার মাঝি আরটিভি নিউজকে জানিয়েছেন, মাছ শিকার ছাড়া আর কোনো পেশার অভিজ্ঞতা না থাকায় দীর্ঘ ২২ দিন মানবেতর জীবন যাপন করতে হয়েছে। এ সময় সরকার ২০ কেজি চাল দিয়েছে, শুধু চাল দিয়ে কি ক্ষুধা মিটে?

একই এলাকার শাহ আলম মাঝি আরটিভি নিউজকে বলেন, এখন সরকারে দেয়া নিষেধাজ্ঞা শেষ। ট্রলার নিয়ে গভীর সমুদ্রে যাত্রা করবো মধ্যরাতে।

পাথরঘাটা ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক দুলাল মাস্টার আরটিভি নিউজকে বলেন, সরকারকে ধন্যবাদ। কঠোরভাবে উপকূলে পাহারা দিয়েছে। তবে এই সময় ভারতীয় ট্রলার যাতে বাংলাদেশের সমুদ্র সীমায় প্রবেশ করতে না পারে এজন্য পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে সরকারকে উদ্যোগ নেওয়ার দাবী জানানো হয়।

তালতলী আড়ৎদার সমিতির সভাপতি মো সুলতান ফরাজি আরটিভি নিউজকে জানিয়েছেন, সরকারের দেওয়া অবরোধ মেনে আমরা সমুদ্রে মাছ শিকার করতে যাইনি।

বরগুনা জেলা মৎস্য কর্মকর্তা বিশ্বজিৎ দেব আরটিভি নিউজকে জানিয়েছেন, বিগত বছরের মতো এবারও জেলেরা শতভাগ সরকারের নির্দেশ যথাযথভাবে পালন করেছে। এছাড়া জেলা প্রশাসন, পুলিশ বিভাগ, জনপ্রতিনিধি ও গণমাধ্যম কর্মীরা আমাদের সহায়তা করেছে।

এমআই/এসকে

মন্তব্য করুন

RTV Drama
RTVPLUS