Mir cement
logo
  • ঢাকা মঙ্গলবার, ০৭ ডিসেম্বর ২০২১, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৮

কন্যাকে ধর্ষণের অভিযোগে পিতা গ্রেপ্তার

কন্যাকে ধর্ষণের অভিযোগে পিতা গ্রেপ্তার

মোংলায় নিজের কন্যাশিশুকে ধর্ষণের অভিযোগে ধর্ষক পিতাকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। বুধবার (২০ অক্টোবর) বিকেলে মোংলার মাকড়ঢোন এলাকা থেকে পুলিশ ধর্ষক মালেককে গ্রেপ্তার করেছে। এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

পুলিশ, স্থানীয় এলাকাবাসী ও শিশুর মা জানান, পৌর শহরের মাকড়ঢোন এলাকার বাসিন্দা মালেক হাওলাদার (৩৫) মঙ্গলবার বিকেল ৪টার দিকে ব্লেড হাতে নিয়ে ভয়ভীতি দেখিয়ে তার নিজ শিশুকন্যাকে (১৪) ধর্ষণ করেন। এর আগের দিন সোমবারও একই সময়ে মেয়েকে ধর্ষণ করেন পিতা মালেক।

মালেকের স্ত্রী হেপি বেগম (২৭) ইপিজেডের একটি ফ্যাক্টরিতে শ্রমিকের কাজ করেন। মঙ্গলবার কাজ থেকে বাড়িতে ফিরে মেয়েকে অসুস্থ ও রক্তাক্ত অবস্থায় দেখতে পান। এরপর মেয়েটি সব কিছু তার মায়ের কাছে খুলে বলেন। বিষয়টি আশপাশের মানুষের মাঝে জানাজানি হলে বুধবার দুপুরে পুলিশকে জানানো হয়। এরপর পুলিশ এ ঘটনায় বিকেলে ওই এলাকা থেকে ধর্ষক পিতা মালেককে আটক করেন।

মোংলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ মনিরুল ইসলাম বলেন, এ ঘটনায় থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে ধর্ষণ মামলা দায়েরের প্রক্রিয়া চলছে। মামলার বাদী হচ্ছেন শিশুটির মা ও ধর্ষকের স্ত্রী হেপি বেগম। মালেক ও হেপি বেগমের দুই ছেলে-মেয়ের মধ্যে মেয়েটি ছোট। মেয়েটি আরাজী মাকড়ঢোন ইসলামিয়া দাখিল মাদ্রাসার ৪র্থ শ্রেণির ছাত্রী।

এ বিষয়ে শিশুটির মা হেপি বেগম বলেন, আমি ইপিজেডের একটি ফ্যাক্টরিতে চাকরি করি। ছেলেটি অন্যের দোকানে কাজ করে। আর মেয়েটি বাড়িতে থাকে। ওর বাবা কিছুই করেনা। মেয়ের গলায় ব্লেড ধরে ভয় দেখিয়ে ধর্ষণ করেছে ওর বাবা মালেক। আমি এ ঘটনার কঠিন বিচার চাই।

এমএন/এসকে

মন্তব্য করুন

RTV Drama
RTVPLUS