logo
  • ঢাকা বুধবার, ২২ জানুয়ারি ২০২০, ৯ মাঘ ১৪২৭

হোটেল রেইনট্রি ও এমপি হারুনকে নিয়ে ঝালকাঠিতে যা বলা হলো

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট, ঝালকাঠি
|  ১৭ মে ২০১৭, ১৯:১৪ | আপডেট : ১৭ মে ২০১৭, ১৯:২৬
রাজধানীর রেইনট্রি হোটেলে ধর্ষণের ঘটনাকে কেন্দ্র করে ঝালকাঠি-১ (রাজাপুর-কাঠালিয়া) আসনের সংসদ সদস্য ও ধর্ম মন্ত্রণলয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সভাপতি বজলুল হক হরুনকে জড়িয়ে বিভিন্ন গণমাধ্যম ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ জানিয়েছেন স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতারা। 

বুধবার সকাল সাড়ে ১০টায় স্থানীয় দলীয় কার্যালয়ে কাঁঠালিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠন আয়োজিত এ সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন উপজেলা আওয়ামী লীগ আহবায়ক ও উপজেলা চেয়ারম্যান গোলাম কিবরিয়া সিকদার। 

এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন জেলা পরিষদ সদস্য এসএম আমিনুল ইসলাম লিটন, রেবা রাণী মন্ডল, শাখাওয়াত হোসেন অপু, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান এমাদুল হক মনির, ইউপি চেয়ারম্যান মাহমুদ হোসেন রিপনসহ ইউপি চেয়ারম্যান ও মুক্তিযোদ্ধাসহ দলীয় নেতারা। 

সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, রেইনট্রি হোটেলে এমপি বিএইচ হারুনের কোন মালিকানা নেই। তিনি একজন সৎ, মেধাবী ও আদর্শবান  রাজনীতিবিদ। তার নেতৃত্বেই স্থানীয় আওয়ামী লীগ সুসংগঠিত এবং উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ডে ইর্ষাণিত হয়ে কতিপয় ব্যক্তি বা গোষ্ঠী স্বীয় স্বার্থ হাসিলের জন্য তার বিরুদ্ধে বিভিন্নভাবে অপপ্রচার চালাচ্ছে। যা  অবাস্তব, বানোয়াট ও বিভ্রান্তিকর হিসেবে সংবাদ সমম্মেলনে দাবি করা হয়।  

আরো বলা হয়, উপজেলা আওয়ামী লীগের পক্ষে বক্তব্য প্রদানকারী সাধারণ সম্পাদক তরুণ সিকদার একটি ধর্ষণ মামলার ১০ বছরের দন্ডপ্রাপ্ত আসামি। তিনি মূলত আওয়ামী লীগের কেউ নয়। ২০১৪ সালে উপজেলা নির্বাচন ও ২০১৬ সনের ইউপি নির্বাচনে তিনি নিজে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থীর বিপক্ষে অবস্থান নেয়ায় দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গের দায়ে তাকে দল থেকে বহিষ্কার করা হয়। 

এসজে

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
  • দেশজুড়ে এর সর্বশেষ
  • দেশজুড়ে এর পাঠক প্রিয়