Mir cement
logo
  • ঢাকা শুক্রবার, ২২ অক্টোবর ২০২১, ৭ কার্তিক ১৪২৮

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি, আরটিভি নিউজ

  ১১ অক্টোবর ২০২১, ২১:৪৭
আপডেট : ১১ অক্টোবর ২০২১, ২২:৪০

মাদরাসার দুই ছাত্রকে বলাৎকার করলো শিক্ষক

মাদরাসার দুই ছাত্রকে বলাৎকার করলো শিক্ষক
মাওলানা মো. জাহিদুল ইসলাম

নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় মাদরাসা পড়ুয়া দুই ছাত্রকে বলৎকার করার অভিযোগে মাওলানা মো. জাহিদুল ইসলাম (৩৪) কে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গ্রেপ্তার শেষে আসামিকে আদালতে পাঠালে বিচারক তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

সোমবার (১১ অক্টোবর) বিকেলে আসামিকে আদালতে ওঠানো হয়। পরে সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. কাউছার আলমের আদালত এ আদেশ দেন। এর আগে, একই আদালতে ভিকটিমরা ২২ ধারায় জবানবন্দি দেন।

মাওলানা জাহিদুল ইসলাম সোনারগাঁ থানার হরিহরদী গ্রামের শফিকুর রহমানের পুত্র ও ফতুল্লা মডেল থানার দেওভোগ এলাকার বাইতুল কোরআন হাফিজিয়া মাদরাসার সুপার হিসেবে কর্মরত। এ ঘটনায় সোমবার ভোরে তাকে ফতুল্লার দেওভোগ এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়।

এর আগে, বলাৎকারের শিকার হওয়া ছাত্রদের মধ্যে এক ছাত্রের বাবা বাদী হয়ে ফতুল্লা মডেল থানায় মামলা দায়ের করেন।

মামলায় উল্লেখ করা হয়, বাদীর দশ বছর বয়সী পুত্র ও বাদীর সঙ্গে থানায় আসা অপর এক সঙ্গীর নয় বছর বয়সী পুত্র উভয়েই দেওভোগ বাইতুল কোরআন হাফিজিয়া মাদরাসায় পড়ালেখা করে। মাদরাসার সুপার মাওলানা মো. জাহিদুল ইসলাম প্রায় সময় তার কক্ষে ডেকে নিয়ে দুই ছাত্রকে দিয়ে হাত-পা টেপাতো। হাত-পা টেপানোর কথা বলে কক্ষে ডেকে নিয়ে ৯ বছর বয়সী ছাত্রকে একাধিকবার বলৎকার করে।

সর্বশেষ চলতি মাসের ৭ তারিখ সকালে মাদরাসার ভিতরে থাকা কক্ষে বাদীর ছেলেকে ডেকে নিয়ে বলৎকার করে।

এর আগে ৯ সেপ্টেম্বর বিকেল ৫টার দিকে বাদীর ছেলের সহযোগী মাদরাসা পড়ুয়া অপর এক ছাত্রকে একই কায়দায় ডেকে নিয়ে বলৎকার করে।

এ বিষয়ে কোর্ট পুলিশের পরিদর্শক আসাদ্জ্জুামান আরটিভি নিউজকে জানিয়েছেন, এ মামলার ভিকটিমরা আদালতে ২২ ধারায় জবানবন্দি দেন। আসামিকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দিয়েছেন বিচারক।

এমআই/এসকে

মন্তব্য করুন

RTV Drama
RTVPLUS