Mir cement
logo
  • ঢাকা রোববার, ২৪ অক্টোবর ২০২১, ৯ কার্তিক ১৪২৮

যে কারণে ন্যাড়া হলো বাউল শিল্পীর মাথা 

যে কারণে ন্যাড়া হলো বাউল শিল্পীর মাথা 
মেহেদী হাসান নামের এক বাউল শিল্পী

বগুড়ার শিবগঞ্জে মেহেদী হাসান (১৬) নামের এক কিশোর বাউল শিল্পীর মাথা ন্যাড়া করে দেয়ার অভিযোগে স্কুল শিক্ষক ও দুই জন গ্রাম্য মাতব্বরকে গ্রেপ্তার করে আদালতে সোপর্দ করেছে পুলিশ।

প্রাথমিকভাবে ঘটনার সাথে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করায় তাদের রিমান্ডের আবেদন করেনি পুলিশ।

মঙ্গলবার (২১ সেপ্টেম্বর) রাত ১১টায় শিবগঞ্জ থানা পুলিশ শিবগঞ্জ সদর ইউনিয়নের জুড়ি মাঝপাড়া গ্রামে অভিযান চালিয়ে তাদেরকে গ্রেপ্তার করে।

গ্রেপ্তারতকৃতরা হলেন শিবগঞ্জ উপজেলার জুড়ি মাঝপাড়া গ্রামের মাতব্বর ও গুজিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের ইংরেজি শিক্ষক মেজবাউল ইসলাম (৫২), একই গ্রামের শফিউল ইসলাম খোকন (৫৫) ও তারেক রহমান (২০)।

বাউল শিল্পী মেহেদী হাসান শিবগঞ্জ উপজেলার জুড়ি মাঝপাড়া গ্রামের বেল্লাল হোসেনের ছেলে।

জানা গেছে, মেহেদী হাসান ৬ষ্ঠ শ্রেণি পর্যন্ত লেখাপড়া করে আর্থিক অনটনের কারণে পড়াশুনা করতে পারেনি। এরপর তার দাদা আলম মন্ডলের বাড়িতে বসবাস শুরু করে। পার্শ্ববর্তী ধাওয়াগীর গ্রামেন মতিন বাউলের সাথে পরিচয় হলে তার সাথে চলাফেরা শুরু করে।

মেহেদী হাসান গত কয়েক বছর ধরে মতিন বাউলের সাথে বিভিন্ন অনুষ্ঠানে বাউল গান গেয়ে উপার্জিত টাকায় জীবিকা নির্বাহ করে আসছিল। বাউল শিল্পী হওয়ার কারণে মেহেদী হাসান সাদা লুঙ্গি সাদা ফতুয়া এবং শরীরে সাদা গামছা ব্যবহার করতো। পাশাপাশি মাথায় বড় লম্বা বাবরি চুল ছিল।

গ্রেপ্তারকৃত ব্যক্তিরা মেহেদী হাসানের পোশাক এবং মাথার চুল নিয়ে বিভিন্ন সময় অশালীন মন্তব্য করে আসছিল। এসবের প্রতিবাদ করায় গ্রেপ্তারকৃত তিনজনসহ আরও ৩ থেকে ৪ জন গত ১৮ সেপ্টেম্বর রাত ১০ টার দিকে আলম মন্ডলের বাড়িতে যায়। তারা মেহেদী হাসানকে ঘুম থেকে ডেকে তুলে জোরপূর্বক চুল কাটা মেশিন দিয়ে তার মাথা ন্যাড়া করে দেয়। এ সময় মাতব্বররা বলে বাউল গান ছেড়ে দিতে হবে এবং মাথার চুল আবারও বড় করলে গ্রাম ছাড়া করা হবে।

বাউল মেহেদির পিতা বেল্লাল হোসেন আরটিভি নিউজকে জানিয়েছেন, ছেলে মেহেদী বাউল গান করার পাশাপাশি ঘরে আধ্যাত্মিক সাধনা তথা জিকির করতো । গ্ৰামের অনেকেই এটা সহ্য করতে পারতো না। তারাই বাসায় এসে তাকে হুমকি দিয়েছে। তখন মেহেদী তাদের কাছে অনেক অনুনয় বিনয় করে চুল না কাটার জন্য। প্রয়োজনে সেলুনে গিয়ে চুল কেটে আসতেও রাজি হয়। কিন্তু মাতব্বররা জোরপূর্বক তার মাথা ন্যাড়া করে দেয়।

শিবগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ সিরাজুল ইসলাম আরটিভি নিউজকে জানিয়েছেন, মঙ্গলবার (২১ সেপ্টেম্বর) রাতে বাউল শিল্পীর মাথা ন্যাড়া করে দেয়ার খবর পেয়ে তাৎক্ষণিক অভিযান চালিয়ে তিনজনকে আটক করে থানায় নিয়ে আসা হয়। পরে আটক তিনজনসহ ৫ জনের নামে মেহেদী হাসান বাদী হয়ে রাতে থানায় মামলা দায়ের করে। বাকি ২ জনকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

বগুড়ার পুলিশ সুপার সুদীপ কুমার চক্রবর্তী আরটিভি নিউজকে বলেন, বাউলের চুল কাটার ঘটনায় প্রত্যক্ষভাবে জড়িত ৩ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। ঘটনায় জড়িত অন্যদের চিহ্নিত করে আইনের আওতায় আনা হবে।

এমআই

মন্তব্য করুন

RTV Drama
RTVPLUS