Mir cement
logo
  • ঢাকা শুক্রবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ৯ আশ্বিন ১৪২৮

ইবি প্রতিনিধি, আরটিভি নিউজ

  ১৩ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২১:৫০
আপডেট : ১৩ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২২:০৫

চাকরি স্থায়ীকরণের দাবিতে ছাত্রলীগ-ভিসি মুখোমুখি

চাকরি স্থায়ীকরণের দাবিতে ছাত্রলীগ-ভিসি মুখোমুখি
চাকরি স্থায়ীকরণের দাবিতে ছাত্রলীগ-ভিসি মুখোমুখি

চাকরি স্থায়ীকরণের দাবিতে অবস্থান কর্মসূচি পালন করেছে দৈনিক মজুরিতে কর্মরত ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা। সোমবার (১৩ সেপ্টেম্বর) বেলা ১২টায় প্রশাসন ভবনের দ্বিতীয় তলায় অবস্থিত ভিসি অফিসের সামনে এ অবস্থান কর্মসূচি পালন করেন তারা।

জানা গেছে, বেলা ১২টায় ছাত্রলীগের সাবেক নেতা রাসেল জোয়ার্দ্দার ও টিটুর নেতৃত্বে প্রায় পঁচিশ থেকে ত্রিশ জন দৈনিক মজুরিতে কর্মরতরা অবস্থান কর্মসূচিতে অংশ নেয়। এসময় তারা ভিসি অফিসের সামনে অবস্থান করে উপাচার্যের সঙ্গে স্বাক্ষাৎ করতে চান।

প্রথম দিকে উপাচার্য সাক্ষাৎ করতে অস্বীকৃতি জানালে তারা শোরগোল শুরু করেন। ফলে বাজে পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়। পরে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে পরিস্থিতি স্বাভাবিক করার চেষ্টা করেন। পরবর্তীতে অবস্থানরত দৈনিক মজুরিতে কর্মরতদের মধ্য থেকে দুইজন প্রতিনিধিকে উপাচার্যের সঙ্গে দেখা করতে বলেন প্রক্টর। এসময় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পুলিশের উপস্থিতিও লক্ষ্য করা যায়। পরে অস্থায়ী চাকুরিজীবীদের পক্ষ থেকে দুইজন সাবেক ছাত্রলীগ নেতা উপাচার্যের সঙ্গে দেখা করেন।

এসময় উপাচার্য তাদেরকে ‘হু আর ইউ’, বলেছেন বলে অভিযোগ করেন। সে প্রেক্ষিতে আবারও ভিসি অফিসের সামনে তারা হট্টগোল শুরু করেন।

এসময় তারা বলেন, আমরা এই ক্যাম্পাসের কে সেটা দেখিয়ে দেবো, আমরা দীর্ঘদিন বিশ্ববিদ্যালয়ে সার্ভিস দিয়ে আসছি, আমরা ছাত্র অবস্থায় ছাত্রলীগের কর্মী ছিলাম, আমাদের চাকুরি কেন দিবে না? ইত্যাদি কথা বলতে থাকেন।

পরে তারা দুপুর দুইটায় বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ছেড়ে যাওয়া শিক্ষক ও কর্মকর্তাদের বাস ও মেইন গেট অবরোধের চেষ্টা করেন। পুলিশের উপস্থিতিতে পরে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে দৈনিক মজুরিতে কর্মরত ছাত্রলীগের সাবেক নেতা রাসেল জোয়াদ্দার আরটিভি নিউজকে বলেন, চাকরি না দিলে আমরা কিন্তু সহজে ছাড় দিবো না। আমরা জীবনে অনেক হামলা-মামলা খাইছি। এখানে ২ বছর চাকরি করেছি। চাকরি না দিলে আমাদের কোনে উপায় থাকবে না।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর আরটিভি নিউজকে জানিয়েছেন, আজকের আন্দোলনের প্রক্রিয়াটি সম্পূর্ণ ভুল ছিলো। কর্তৃপক্ষ নিয়মের মধ্যে থেকেই বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল নিয়োগ প্রক্রিয়া সম্পন্ন করবে। তিনি আরও বলেন, আগামীতে যদি এরকম পরিস্থিতি সৃষ্টি হয় তাহলে আমরা আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সাহায্য চাইবো।

ভিসি প্রফেসর ড. আবদুস সালাম আরটিভি নিউজকে জানিয়েছেন, অর্গানোগ্রামের বাইরে গিয়ে নিয়োগ দেওয়া সম্ভব না। ইউজিসির পক্ষ থেকে এ মুহূর্তে তাদের নিয়োগ দেওয়ার নিদের্শনা নেই। কাউকে চাকরি দিতে হলে নিদিষ্ট প্রক্রিয়ার মাধ্যমে বা একটা এজেন্সির মাধ্যমে দিতে হবে। আমরা যখন সার্কুলার দেবো তখন তাদের কথা বিবেচনায় রাখবো। বিশ্ববিদ্যালয়ের স্বাভাবিক কার্যক্রম ব্যাহত হলে অবশ্যই প্রশাসনের মাধ্যমে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

উল্লেখ্য, সাবেক ভিসি প্রফেসর ড. হারুন-উর-রশিদ আসকারীর সময়কালে দৈনিক মজুরিতে আন্দোলনরতরা কাজের সুযোগ পায়। তার মেয়াদ শেষ হওয়ার পূর্ব থেকেই তারা স্থায়ী নিয়োগের জন্য বিভিন্ন সময়ে আন্দোলন ও অবস্থান কর্মসূচি পালন করে আসছে।

এমআই

মন্তব্য করুন

RTV Drama
RTVPLUS