Mir cement
logo
  • ঢাকা বুধবার, ০৪ আগস্ট ২০২১, ২০ শ্রাবণ ১৪২৮

ভৈরব প্রতিনিধি, আরটিভি নিউজ

  ১৯ জুলাই ২০২১, ২১:১২
আপডেট : ১৯ জুলাই ২০২১, ২১:৩২

এক্সরেতে ধরা পড়লো পেটের ভেতরে ৮০০ পিস ই'য়াবা

এক্সরেতে ধরা পড়লো পেটের ভেতরে ৮০০ পিস ইয়াবা
এক্সরেতে ধরা পড়লো পেটের ভেতরে ৮০০ পিস ইয়াবা

কিশোরগঞ্জের ভৈরবে অভিনব কায়দায় পেটের ভেতরে করে ইয়াবা পাচারের ঘটনায় দুই মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করেছে জেলা গোয়েন্দা পুলিশ। পরে এক্স-রে করলে বিষয়টি ধরা পড়ে। পরে পায়ুপথ দিয়ে পলিথিনে মোড়ানো একে একে ৮টি প্যাকেট বেরিয়ে আসে। ফলে ৮টি প্যাকেট থেকে ৮০০ পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়।

পুলিশের হাতে আটক মাদক ব্যবসায়ীরা হলেন, ব্রাহ্মণবাড়ীয়া জেলার সরাইল উপজেলার পানিশ্বর গ্রামের আব্দুল গফুরের ছেলে মোহাম্মদ আলী (৫৫) এবং কিশোরগঞ্জ জেলা সদর এলাকার নিজাম উদ্দিনের ছেলে সাইফুল ইসলাম (২৮)।

জানা গেছে, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে রোববার রাতে ভৈরব শহরের দুর্জয় মোড় এলাকা থেকে দুইজন মাদক কারবারিকে আটক করে জেলা গোয়েন্দা পুলিশ। পরে তাদের দেহ তল্লাশি করে ইয়াবা বড়ি না পেয়ে হাসপাতালে নিয়ে এক্স-রে করানো হলে পেটের ভেতরে ছোট ছোট প্যাকেট দেখা যায়। ফলে এক সময় মলদ্বার দিয়ে একে একে ৮টি প্যাকেট বেরিয়ে আসে। আর এসব প্যাকেট থেকে ৮শ ইয়াবা বড়ি উদ্ধার করা হয়।

এ প্রসঙ্গে কিশোরগঞ্জ জেলা গোয়েন্দা পুলিশের উপ-পরিদর্শক ওসমান গনি জানান, শহরের বাসস্ট্যান্ড এলাকা থেকে প্রথমে দুইজনকে আটক করার পর জিজ্ঞাসাবাদে তারা মাদক বহনের কথা অস্বীকার করে। পরে মাদক ব্যবসায়ী মোহাম্মদ আলীকে স্থানীয় একটি হাসপাতালে নিয়ে এক্স-রে করলে বিষয়টি ধরা পড়ে। এরপর মলদ্বার দিয়ে ৮টি প্যাকেট বের করা হয়। প্রতিটি প্যাকেটে ১০০ পিস করে সর্বমোট ৮০০ ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। তার সহযোগী সাইফুলকেও আটক করা হয়। এ ঘটনায় দুইজনকে আসামি করে থানায় একটি মাদক মামলা দিয়ে আজ সোমবার দুপুরে দুজনকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে ভৈরব থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. শাহিন সাংবাদিকদের জানান, একজন মাদক ব্যবসায়ী অভিনব কৌশলে মাদক বহন করে নিয়ে আসছে। এমন সংবাদের ভিত্তিতে গোয়েন্দা পুলিশ অভিযান চালিয়ে তাদেরকে আটক করেন।

পি

মন্তব্য করুন

RTV Drama
RTVPLUS