Mir cement
logo
  • ঢাকা বুধবার, ০৪ আগস্ট ২০২১, ২০ শ্রাবণ ১৪২৮

টাঙ্গাইল (উত্তর) প্রতিনিধি, আরটিভি নিউজ

  ১৪ জুলাই ২০২১, ১৪:০৬
আপডেট : ১৪ জুলাই ২০২১, ১৪:১১

সাংবাদিক হত্যা চেষ্টায় স্বেচ্ছাসেবক লীগের নেতাসহ ৪ জনের বিরুদ্ধে মামলা

সাংবাদিক হত্যা চেষ্টায় স্বেচ্ছাসেবক লীগের নেতাসহ ৪ জনের বিরুদ্ধে মামলা
সাংবাদিক আব্দুল্লাহ আল মাসুদ

সংবাদ প্রকাশ করায় পূর্ব শত্রুতার জের ধরে টাঙ্গাইলে আব্দুল্লাহ আল মাসুদ নামের এক সাংবাদিককে মারধর এবং হত্যার চেষ্টা করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (১৩ জুলাই) রাতে সদর উপজেলার আকুর টাকুর পাড়ায় হাউজিং মাঠ এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় মাসুদ গুরুত্বর আহত হয়। পরে তিনি হাসপাতালে ভর্তি হয়ে চিকিৎসা নিয়ে রাতেই থানায় মামলা দায়ের করেন। আব্দুল্লাহ আল মাসুদ চ্যানেল ২৪ এর ক্যামেরা পার্সন।

সাংবাদিক মাসুদ মামলায় উল্লেখ করেন, মাসুদ তার নিজ বাসা থেকে বের হয়ে একাই টাঙ্গাইল প্রেসক্লাবের দিকে যাচ্ছিল। পথে আকুর টাকুর পাড়ায় হাউজিং মাঠ এলাকায় পৌছলে টাঙ্গাইল জেলা আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি মীর্জা আনোয়ার হোসেন এবং তার ছেলে মির্জা সিয়াম আনোয়ার বিশালসহ আরও অনেকেই মোটরসাইকেল গতিরোধ করে। পরে মীর্জা আনোয়ার হোসেনের নির্দেশে তার ছেলেসহ ৫ থেকে ৬ জন প্রথমে মাসুদকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে।

মাসুদ গালি গালাজ করতে মানা করলে তারা ক্ষিপ্ত হয়ে মাসুদের শরীরের বিভিন্ন স্থানে কিল ঘুষি এবং লাঠি দিয়ে আঘাত করে। এ ছাড়াও মির্জা সিয়াম আনোয়ার বিশালের হাতে থাকা লোহার রড দিয়ে হত্যার উদ্দেশ্য মাসুদের মাথায় আঘাতের চেষ্টা করে। এ সময় মাসুদের কাছে থাকা নগদ ১৫ হাজার টাকা নেয় এবং মোটরসাইকেল ভাংচুর করে তারা।

এ সময় মাসুদের চিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে আসলে তারা পালিয়ে যায়। পালিয়ে যাওয়ার সময় তারা মাসুদকে উদ্দেশ্য করে বলে ‘পরবর্তী সময়ে সুযোগ পেলে আরও মারধর করা হবে এবং হত্যা করে লাশ গুম করে ফেলা হবে।’ পরে স্থানীয়দের সহযোগিতায় মাসুদ হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়ে রাতেই ৪ জনকে নাম উল্লেখ এবং অজ্ঞাত আরো ৩ থেকে ৪ জনকে আসামি করে থানায় মামলা দায়ের করেন।

মামলার আসামীরা হলেন, জেলা আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি মীর্জা আনোয়ার হোসেন ও তার ছেলে মির্জা সিয়াম আনোয়ার বিশাল, মো. রাফি এবং মো. রাকিব।

এ বিষয়ে সাংবাদিক আব্দুল্লাহ আল মাসুদ আরটিভি নিউজকে বলেন, ছিনতাইকারী ও মোটরসাইকেল চুরির অভিযোগে জেলা আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি মীর্জা আনোয়ার হোসেনের ছেলেসহ ২ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ এ সংক্রান্ত একটি নিউজ গত বছরের ১ মে করা হয়। এরই জের ধরে পূর্ব পরিকল্পিতভাবে মীর্জা আনোয়ার হোসেনে নির্দেশে আমাকে হত্যার চেষ্টা এবং মারধর করা হয়। পরে আমি স্থানীয়দের সহযোগিতায় টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি হই। সেখানে চিকিৎসা নিয়ে রাতেই থানায় মামলা দায়ের করি। আমি এ ঘটনায় আসামিদের গ্রেপ্তার এবং বিচারের দাবি করছি।

এ মামলার আইও টাঙ্গাইল সদর থানায় এসআই মোরাদুজ্জামান আরটিভি নিউজকে বলেন, থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। এ ঘটনায় আসামিদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

এদিকে সাংবাদিক মাসুদের ওপর হামলার ঘটনায় টাঙ্গাইল প্রেসক্লাবের সভাপতি জাফর আহমেদ এবং সাধারণ সম্পাদক কাজী জাকেরুল মওলাসহ কর্মরত সাংবাদিকরা তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন। তারা এ ঘটনায় আসামিদের দ্রুত গ্রেপ্তার দাবি করেন।

জিএম

মন্তব্য করুন

RTV Drama
RTVPLUS