Mir cement
logo
  • ঢাকা রোববার, ২০ জুন ২০২১, ৬ আষাঢ় ১৪২৮

চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি, আরটিভি নিউজ

  ০৫ জুন ২০২১, ০৯:২৮
আপডেট : ০৫ জুন ২০২১, ০৯:৩৩

গৃহবধূকে অপহরণ করে ১০ দিন আটকে রেখে ধ’র্ষণ, অভিযুক্ত গ্রেপ্তার

গৃহবধূকে অপহরণ করে ১০ দিন আটকে রেখে ধর্ষণ, অভিযুক্ত গ্রেপ্তার
ফাইল ছবি

চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গায় এক গৃহবধূকে অপহরণ করে ১০ দিন আটকে রেখে ধর্ষণের অভিযোগে এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

শুক্রবার (৪ জুন) রাত সাড়ে ১০টার দিকে আলমডাঙ্গা উপজেলার শালিকা গ্রামে অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

পুলিশের অভিযানে গ্রেপ্তার মানিক মিয়া মৃত আব্দুল হান্নানের ছেলে।

এর আগে রাত ৯টার দিকে আলমডাঙ্গা থানায় অপহরণ এবং নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা দায়ের করেন নির্যাতনের শিকার গৃহবধূর বাবা।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, প্রায় দেড় বছর আগে আলমডাঙ্গায় এক দিনমজুরের মেয়ের বিয়ে হয় পার্শ্ববর্তী মোচাইনগর গ্রামে। গেল ২২ মে বাবার বাড়ি থেকে শ্বশুর বাড়ি যাচ্ছিলেন ওই গৃহবধূ। পথিমধ্যে বেলা ১১টার দিকে একই গ্রামের মানিক মিয়ার সঙ্গে তার দেখা হয়। মানিক মোটরসাইকেল করে ওই গৃহবধূকে শ্বশুরবাড়ি পৌঁছে দেয়ার কথা বলে জোরপূর্বক চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার দশমাইল গ্রামে নিয়ে যায়। ওই গ্রামের মোহর আলীর বাড়িতে নিয়ে গিয়ে তাকে আটকে রাখে মানিক। সেখানে ১০ দিন আটকে রেখে ওই গৃহবধূকে ধর্ষণ করে মানিক।

গত ২ জুন বাড়ি নিয়ে যাওয়ার আশ্বাস দিয়ে ওই গৃহবধূকে মোটরসাইকেলযোগে সদর উপজেলার ভালাইপুর বাজারে নিয়ে যায় তিনি। সেসময় মোবাইল রিচার্জ করে আসছি বলে সেখান থেকে পালিয়ে যায় মানিক। পরে বাড়ি ফিরে পরিবারকে অপহরণ এবং আটকে রেখে ধর্ষণের কথা জানায় নির্যাতনের শিকার গৃহবধূ।

শুক্রবার রাতে আলমডাঙ্গা থানায় বাদী হয়ে অপহরণ এবং নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা দায়ের করেন নির্যাতনের শিকার গৃহবধূর বাবা। পরে অভিযান চালিয়ে নিজ গ্রাম থেকে মানিককে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

এ বিষয়ে আলমডাঙ্গা থানার ওসি আলমগীর কবীর জানান, মামলার পর অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত মানিককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। আজ শনিবার তাকে আদালতে সোপর্দ করা হবে।

এসএস

RTV Drama
RTVPLUS