Mir cement
logo
  • ঢাকা বুধবার, ১৯ মে ২০২১, ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮

কেন দাম বাড়লো তরমুজের? (ভিডিও)

রমজান ও তীব্র তাপদাহের কারণে বাজারে কদর বেড়েছে রসালো ফল তরমুজের। তবে উচ্চ দামের ফলের স্বাদ থেকে বঞ্চিত হচ্ছে অনেকে। পটুয়াখালী ও ভোলায় পাইকারিরা প্রান্তিক কৃষকদের কাছ থেকে পিস হিসেবে তরমুজ কিনলেও বাজারে তা বিক্রি করছে কেজি দরে। মধ্যস্বত্বভোগীদের কারসাজিতে একদিকে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে কৃষক, অন্যদিকে বঞ্চিত হচ্ছে সাধারণ মানুষ।

বিগত বছরগুলোতে পিস হিসেবে তরমুজ বিক্রি হলেও এ বছর কেজি হিসেবে বিক্রি হচ্ছে, দামও নাগালের বাইরে। গেল বছর যে তরমুজ ১০০-১৫০ টাকায় পাওয়া যেত এ বছর তার দাম ৫০০-৬০০ টাকা। তরমুজের বাড়তি দামের পেছনে লকডাউন আর তীব্র তাপদাহকে অজুহাত হিসাবে দেখাচ্ছে বিক্রেতারা। ক্রেতারা অবশ্য দায়ী করছে সিন্ডিকেট কারসাজিকে।

বিক্রেতারা বলছেন, ৩-৪শ’ টাকা দাম চাইলে কেউ কিনে না। কেজিতে দাম চাইলে তখন কিনে। আবার কেউ বলছেন, পিস হিসেবে বিক্রি করলে ৪শ’ টাকা দাম চাইলে তারা দাম শুরু করে ২শ’ টাকা থেকে। তাহলে বিক্রি করব কিভাবে।

ক্রেতারা বলছেন, গত বছর এবং এ বছর শুরুর দিকে পিস হিসেবে তরমুজ কিনেছি। কিন্তু এখন তারা কেজি হিসেবে বিক্রি করে। আবার কোনও ক্রেতারা বলছেন, বাধ্য হয়েই কেজি দরে তরমুজ কিনছেন তারা।

ভোক্তাদের মতে বাজার নিয়ন্ত্রণহীন হলেও পটুয়াখালী ও ভোলার প্রশাসনের দাবি নিয়মিত মনিটরিং করছে তারা।

পটুয়াখালী জেলা প্রশাসক মো. মতিউল ইসলাম চৌধুরী বলছেন, আমাদের কাছে এখনো অফিসিয়ালি কোনও অভিযোগ আসেনি। তবে আমরা নিজ থেকে বাজার মনিটরিং করেছি। এছাড়া বাজার মনিটরিং কর্মকর্তাও বিভিন্ন বাজারে ঘুরছেন। আমরা ইতোমধ্যে ব্যবসায়ীদের সঙ্গে কথা বলেছি যেন, ক্রয়-বিক্রয় মূল্যের মাঝে ব্যবধানটা খুব বেশি না হয়।

এদিকে কেজি দরে তরমুজ বিক্রির নামে মুনাফাখোরি বন্ধে কার্যকরী পদক্ষেপ চান সাধারণ মানুষ।

এসআর/ এসএস

RTV Drama
RTVPLUS