Mir cement
logo
  • ঢাকা বুধবার, ১৯ মে ২০২১, ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮

আনারসও কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে

আনারসের বাজারেও আগুন
আনারসের বাজারেও আগুন

কুষ্টিয়ায় তরমুজ, কাঁঠাল ও বেলের পর এবার আনারসও কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে। বিভিন্ন বাজার ঘুরে দেখা যায়, প্রতি কেজি আনারস ৭০ থেকে ৮০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। বেশিরভাগ ক্রেতাই আনারসের দাম শুনে যেন চােখ কপালে তোলার মতো অবস্থা। ইচ্ছামতো দাম বৃদ্ধি করে আনারস বিক্রি করছেন ব্যবসায়ীরা।

সরেজমিনে শহরের বিভিন্ন বাজার ঘুরে দেখা যায়, ছোট আনারস কেজি দরে রমজানের আগে বিক্রি হতো ৪০ থেকে ৪৫ টাকা। কিন্ত ১৬ রমজানে এসে তার দাম বেড়েছে ৭০ থেকে ৮০ টাকা। তার মানে কেজিতে বেড়েছে ৩০ থেকে ৩৫ টাকা।

সরবরাহ থাকলেও সংকটের কথা বলে আনারসের দাম বেশি নিচ্ছেন ব্যবসায়ীরা। এতে ঠকছেন ক্রেতারা।

আনারস কিনতে আসা রাকিব নামে এক ক্রেতা বলেন, আমার সন্তানেরা খুবই আনারস পছন্দ করে। রোজার আগে কিনেছিলাম ৩৫ থেকে ৪০ টাকা কেজি দরে। সেটা এখন দেখি ৭০ থেকে ৮০ টাকা কেজিতে বিক্রি হচ্ছে। এমন অবস্থায় আমার পক্ষে ক্রয় করা সম্ভব নয়।

সিয়াম নামে আরও এক ক্রেতা বলেন, আড়তদাররা কৃষকদের কাছ থেকে পিস হিসেবে আনারস কিনে খুচরা বাজারে কেজি দরে বিক্রি করছেন। দুই সপ্তাহের ব্যবধানে দ্বিগুণ মূল্য বাড়িয়েছেন তারা।

সুমন নামে এক ক্রেতা বলেন, ৭০ থেকে ৮০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে। যেভাবে দাম চাওয়া হচ্ছে, আমাদের কেনার সাধ্য নেই। এজন্য না কিনে বাড়ি চলে যাচ্ছি।

কুষ্টিয়া পৌর বাজারের একজন আড়তদার বলেন, এ বছর আনারসের দাম বেশি। আমরা টাঙ্গাইলের মধুপুর, মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গল ও রাঙ্গামাটির কৃষকদের কাছ থেকে প্রতি পিস আনারস ২০ থেকে ২৫ টাকা দরে ক্রয় করি। দুই হাজার টাকা মণ বিক্রি করি। পরিবহন, শ্রমিক খরচ, আড়ত ভাড়া মিলিয়ে অনেক দাম পড়ে যায়। তবে তুলনামূলক বেশি লাভ করেন খুচরা বিক্রেতারা।

এমআই/এম

RTV Drama
RTVPLUS