Mir cement
logo
  • ঢাকা শনিবার, ১৫ মে ২০২১, ১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮

রাজশাহী প্রতিনিধি, আরটিভি নিউজ

  ১৯ এপ্রিল ২০২১, ০৮:৩৬
আপডেট : ১৯ এপ্রিল ২০২১, ১১:৩৬

বিয়ের চাপ দেয়ায় প্রেমিকাকে খুন, কনস্টেবল গ্রেপ্তার 

Murder of a young woman due to pressure of marriage, constable arrested
বিয়ের চাপ দেয়ায় প্রেমিকাকে খুন, কনস্টেবল গ্রেপ্তার 

রাজশাহী নগরীর সিটিহাট এলাকার একটি ডোবায় পড়ে থাকা ড্রামবন্দি উদ্ধার হওয়া তরুণীর পরিচয় মিলেছে। এই হত্যাকাণ্ডে এক পুলিশ কনস্টেবলকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। হত্যাকাণ্ড ও মরদেহ গুমের সঙ্গে জড়িত আরও ৩ জন গ্রেপ্তার হয়েছেন।

রোববার (১৮ এপ্রিল) পিবিআই তাদের ফেসবুক পেজে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

গ্রেপ্তারকৃত পুলিশ কনস্টেবল হলেন নিমাই চন্দ্র সরকার (৪৩)। তিনি পাবনার আতাইকুলার মৃত হেমন্ত সরকারের ছেলে। বর্তমানে তিনি রাজশাহী জিআরপি থানায় দায়িত্ব পালন করছেন। ১৫ এপ্রিল থেকে ছুটিতে ছিলেন তিনি।

অন্যদিকে তার ৩ সহযোগী নগরের কাশিয়াডাঙ্গা থানার আদারীপাড়ার কবির আহম্মেদ (৩০), রাজপাড়া থানার শ্রীরামপুর এলাকার সুমন আলী (৩৪) এবং মাইক্রোবাসচালক নগরীর বিলশিমলা এলাকার আব্দুর রহমান (২৫)।

নিহত ওই তরুণী ননিকা রাণী রায় (২৩) ঠাকুরগাঁও সদরের মিলনপুর গড়েয়ার নৃপেণ চন্দ্র বর্মণের মেয়ে। তিনি রাজশাহী মেডিকেল নার্সিং ইন্সটিটিউট থেকে সদ্য অধ্যয়ন শেষ করেন। পাঠানপাড়া এলাকায় মেসে থাকতেন তিনি।

পুলিশ জানিয়েছে, সম্প্রতি বিয়ের জন্য চাপ দেয়াতেই ননিকাকে খুন করে নিমাই। তাকে নগরীর তেরখাদিয়া এলাকায় একটি ভাড়া করা ফ্ল্যাটে ডেকে শ্বাসরোধে হত্যা করে ড্রামে ভরে করে ফেলে আসেন নিমাই। এতে সহযোগিতা করেন মাইক্রোবাসের চালকসহ আরও ২ জন। তাদের সবাইকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

এদিকে শাহমখদুম থানার ওসি সাইফুল ইসলাম জানিয়েছেন, রাজশাহী নগরীর সিটিহাট এলাকার একটি ডোবায় পড়ে থাকা ড্রামের ভেতর থেকে গত শুক্রবার (১৬ এপ্রিল) সকাল সাড়ে ১০টার দিকে তরুণীর লাশ উদ্ধার করা হয়। রোববার (১৮ এপ্রিল) নিহত ওই তরুণীর পরিচয় শনাক্ত করে তার পরিবার। নিহত তরুণীর নাম ননিকা রানী রায় (২৪)। তিনি ঠাকুরগাঁও সদরের মিলনপুরের নৃপেণ চন্দ্র বর্মণের মেয়ে। রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের নার্সিং ইন্সটিটিউট থেকে ডিপ্লোমা ডিগ্রি সমাপ্ত করে নার্সের চাকরি করতেন।

নিহতের মোবাইল ফোনের সূত্র এবং ওই এলাকার সিসিটিভির ফুটেজ দেখে অভিযুক্ত কনস্টেবল নিমাইকে শনাক্ত করা হয়েছে বলেও পিবিআই সূত্রে জানা গেছে।

এ বিষয়ে জিআরপি থানার সেকেন্ড অফিসার শহিদুল ইসলাম বলেন, কনস্টেবল নিমাই চন্দ্র দীর্ঘদিন ধরে জিআরপিতে দায়িত্বরত। নগরীর রাজপাড়া এলাকায় তিনি ভাড়া বাসায় থাকতেন। রোববার (১৮ এপ্রিল) দুপুরে পিবিআই থেকে ফোন আসে নিতাই চন্দ্রকে (ব্যাচ নং- ১৯৬) তারা আটক করেছেন। তবে কেন আটক করেছেন তা তারা জানাননি।

তিনি আরও বলেন, নিমাই গত বৃহস্পতিবার (১৫ এপ্রিল) ৫ দিনের ছুটি নিয়েছিলেন অসুস্থতাজনিত কারণে। আগামী সোমবার (১৯ এপ্রিল) তার জয়েন করা কথা ছিল।

জিএম/পি

RTV Drama
RTVPLUS