logo
  • ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ১২ ফাল্গুন ১৪২৭

টাকার জন্য মাকে খুন, ৩৫ দিন পর লাশ উদ্ধার

মায়ের অংশের টাকা ছিনিয়ে নিয়ে বন্ধু ও চাচার সহযোগিতায় মা’কে খুন করে ছেলে। পরে ছেলের বন্ধুর স্বীকারোক্তিতে খুন হওয়া মায়ের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। খুন হবার ৩৫ দিন পর মঙ্গলবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) কুষ্টিয়ার পোড়াদহে বাড়ির পুকুরের পাশে থেকে পুতে রাখা বস্তাবন্দী লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিহত মমতাজ বেগম পোড়াদহ উত্তরপাড়ার ফজল হোসেন’র স্ত্রী।

কুষ্টিয়া গোয়েন্দা পুলিশের ওসি আমিনুল ইসলাম জানিয়েছেন, মিরপুর থানায় মমতাজ নামে একজন নিখোঁজ হওয়ার সাধারণ ডায়েরী করা হয়। নিহতের জামাতা এই ডায়েরী করেন। তদন্ত সাপেক্ষে ডিবি পুলিশ রাব্বি নামের একজনকে আটক করে। সে মমতাজের ছেলের বন্ধু। পারিবারিক ভাগবাটোয়ারা নিয়ে বিরোধে তার সহযোগিতায় মমতাজের ছেলে এ হত্যাকাণ্ড করে। এর সঙ্গে মুন্নার চাচাও জড়িত। পরে রাব্বির স্বীকারোক্তিতে লাশ উদ্ধার করা হয়। লাশ ময়না তদন্তের জন্য কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

নিহতের ছেলে মুন্না এখন পর্যন্ত পলাতক রয়েছে। দ্রুত তাকে আটক করে আইনের আওতায় আনা হবে বলেও জানান পুলিশের ওই কর্মকর্তা। পরিবারের সদস্য মুন্নার চার বোনের মধ্যে টাকা ভাগা-ভাগি হয়। নিহত মা মমতাজও ভাগের অংশ পায়। অভিযোগ উঠেছে, মায়ের ভাগের টাকা ছিনিয়ে নিয়ে বন্ধু ও চাচার সহযোগিতায় মাকে হত্যা করে ছেলে মুন্না।

এসআর/

RTV Drama
RTVPLUS