logo
  • ঢাকা সোমবার, ০৮ মার্চ ২০২১, ২৩ ফাল্গুন ১৪২৭

বাবা-মা লাপাত্তা, মৃত নবজাতককে নিয়ে বিপাকে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ

হাসপাতাল×নার্স×খোঁজ×জয়পুরহাট×বাবা×মা×মফিদুল×মৃত্যু×
ছবি আরটিভি নিউজ

জয়পুরহাট জেলা আধুনিক হাসপাতালের মা ও শিশু ওয়ার্ডে নবজাতক ছেলে সন্তানকে হাসপাতালে ভর্তি করে পালিয়ে গেছে শিশুটির পরিচয়দানকারী বাবা-মা ও পরিবারের সদস্যরা। ভর্তি করার দুই ঘণ্টা পরে ওই শিশুটির মৃত্যু হয়েছে। মৃত শিশুটিকে নিয়ে বিপাকে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। আজ সোমবার দুপুর পর্যন্ত শিশুটির কোনও আত্মীয়কে খোঁজে পাওয়া যায়নি।

আরও পড়ুনঃ করোনার টেস্ট ফি এক হাজার টাকা, ছবি তুলতে গিয়ে অবরুদ্ধ সাংবাদিক

আধুনিক জেলা হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, গতকাল রোববার রাত পৌনে আটটার দিকে বাবু নামে চার দিনের অপ্রাপ্তবয়স্ক এক নবজাতক ও তার মাকে সঙ্গে নিয়ে পাঁচবিবি উপজেলার রতনপুর গ্রামের সাগর নামে এক ব্যক্তি বাবার পরিচয় দিয়ে হাসপাতালে ভর্তি করান। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ ওই নবজাতককে মা ও শিশু ওয়ার্ডে রেখে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছিল। এরই একপর্যায়ে রাতের কোনও একসময় মা-বাবা পরিচয়দানকারী ওই নবজাতককে রেখে পালিয়ে যায়। পরে রাত ১০ টার দিকে শিশুটির মৃত্যু হয়।

জয়পুরহাট আধুনিক জেলা হাসপাতালে আরএমও ডা. খন্দকার মিজানুর রহমান আরটিভি নিউজ বলেন, নবজাতককে ভর্তি রেখে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছিল। কোনও এক সুযোগে শিশুটিকে হাসপাতালে রেখে পালিয়ে যান শিশুটির মা-বাবা। ভোর রাতে শিশুটি মারা যায়।

আরও পড়ুনঃ ২৯ হাজার টাকার পাঙাশ ধরা খেলো এক টাকার বড়শিতে

জয়পুরহাট জেলা আধুনিক হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক সরদার রাশেদ মোবারক আরটিভি নিউজকে জানান, নবজাতককে ভর্তি রেখে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছিল। কোনও এক সুযোগে শিশুটিকে হাসপাতালে রেখে পালিয়ে যান শিশুটির মা-বাবা। ভর্তির দুই ঘণ্টা পর শিশুটির মৃত্যু হয়।

আরও পড়ুন: স্বামীকে ‘তালাক না দিয়েই’ নাসিরকে বিয়ে করেছেন তামিমা! (ভিডিও)

বিষয়টি হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক ও নার্সদের নজরে এলে তাদের খোঁজ শুরু করা হয়। অনেক খোঁজাখুঁজি করে না পেয়ে বিষয়টি জয়পুরহাট থানা-পুলিশকে জানানো হয়। হাসপাতালে দেওয়া তথ্যে ওই শিশুটির বাবা-মার এখন পর্যন্ত কোনও খবর পাওয়া যায়নি। সিসি টিভির ফুটেজ পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে। যদি বাবা-মার খোঁজ না পাওয়া যায়, তাহলে আঞ্জুমান মফিদুলের মাধ্যমে শিশুটির মরদেহ সরকারি গোরস্থানে দাফন করা হবে।

জয়পুরহাট সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলমগীর জাহান আরটিভি নিউজকে বলেন, খবর পেয়ে হাসপাতালে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। বিষয়টি তদন্ত করা হচ্ছে এবং মৃত নবজাতকের বাবা-মাকে শনাক্ত করার চেষ্টা করা হচ্ছে। কাউকে পাওয়া না গেলে পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

জেবি

RTV Drama
RTVPLUS