logo
  • ঢাকা বুধবার, ০৩ মার্চ ২০২১, ১৮ ফাল্গুন ১৪২৭

কুমিল্লায় চেয়ারম্যানের নেতৃত্বে সন্ত্রাসী হামলা, নারীকে কুপিয়ে হত্যা

Bakhrabad Gas Distribution Company is giving job
কুমিল্লায় চেয়ারম্যানের নেতৃত্বে সন্ত্রাসী হামলা

কুমিল্লার মেঘনায় ফারুক আব্বাসী নামে এক ইউপি চেয়ারম্যানের নেতৃত্বে সন্ত্রাসী হামলার ঘটনায় এক নারী নিহত হয়েছেন। গত ইউপি নির্বাচন নিয়ে পূর্ব বিরোধের জের ধরে নাজমা বেগম নামে ওই নারীকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়। এ সময় আরও ৫ জনকে কুপিয়ে গুরুতর জখম করা হয়েছে। শুক্রবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে উপজেলার ভাওরখোলা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও এলাকাবাসী জানিয়েছেন, ভাওরখোলা ইউপি চেয়ারম্যান ফারুক আব্বাসীর নেতৃত্বে এই হামলা চালানো হয়েছে। নিহত নাজমা বেগম (৬৫) ওই গ্রামের আবদুস সালামের স্ত্রী। এ ঘটনায় আহতরা হলেন- আবদুস সালাম, তাঁর ভাই সিরাজুল ইসলাম, ফারুক, মকবুলসহ অন্তত ৫ জন। আহতদের মধ্যে সালামসহ দুজনকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল (ঢামেক) কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। হামলাকারী এবং হামলার শিকার দুপক্ষই আওয়ামী লীগের রাজনীতির সঙ্গে জড়িত বলে জানা গেছে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানায়, গত ইউপি নির্বাচনে প্রার্থী হওয়া নিয়ে আব্বাসীর সঙ্গে বিরোধ চলছিল সিরাজুল ইসলামের। শুক্রবার সিরাজুল ইসলাম তার চাচাতো ভাই দিলবরের মেয়ের বিয়ে উপলক্ষে ঢাকা থেকে বাড়িতে আসেন। তবে সামনে ইউপি নির্বাচন হওয়ায় সিরাজের বাড়িতে আসার বিষয়টি মেনে নিতে পারেননি আব্বাসী। এজন্য শুক্রবার সন্ধ্যায় আব্বাসীর নেতৃত্বে একদল সন্ত্রাসী রামদা, চাইনিজ কুড়ালসহ দেশীয় অস্ত্র নিয়ে সিরাজুল ইসলামদের ঘরে হামলা চালায়। এ সময় নাজমা বেগমসহ ঘরে থাকা সকলকে কুপিয়ে আহত করা হয়। পরে আহতদের উপজেলা হাসপাতালে নিতে চিকিৎসকরা নাজমা বেগমকে মৃত ঘোষণা করেন।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে মেঘনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আবদুল মজিদ বলেন, চেয়ারম্যান ফারুক আব্বাসীর নেতৃত্বে এই হামলার ঘটনা ঘটেছে বলে প্রাথমিকভাবে নিশ্চিত হয়েছি। এ ঘটনায় জড়িতরা এলাকা থেকে পালিয়ে গেছে। আমরা তাদের আটক করতে অভিযান অব্যাহত রেখেছি।

পি

RTV Drama
RTVPLUS