নিজ বাসাতেই তরুণীদের এনে দেহব্যবসা করাতেন আছমা

প্রকাশ | ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ১৩:৫৪ | আপডেট: ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ১৪:০৩

মৌলভীবাজার প্রতিনিধি, আরটিভি নিউজ
ছবি আরটিভি নিউজ

শ্রীমঙ্গলের পতিতা সম্রাজ্ঞী আছমাকে (৪৫) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গতকাল বুধবার   রাত পৌনে দশটার দিকে গোপন সংবাদ পেয়ে শ্রীমঙ্গল থানা পুলিশের এসআই ইউসুফ আলীর নেতৃত্বে একদল পুলিশ অভিযান চালিয়ে শহরের গুহ রোড এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে।

আরও পড়ুন : ধর্ষণের পর রক্তাক্ত বোনকে রেখে পালিয়ে গেলো ভাই

এসআই ইউসুফ আলী জানান, গেলো ১৫ ফেব্রুয়ারি রাতে পতিতাবৃত্তির অভিযোগে পুলিশ শহরের হাউজিং এস্টেট এলাকায় অবস্থিত তার বাসায় অভিযান চালায়। এ সময় সেখান থেকে পতিতাবৃত্তির অভিযোগে দুই নারী ও দুই পুরুষ খদ্দেরকে আটক করে। এর আগেই সেখান থেকে কৌশলে সটকে পড়তে সক্ষম হন আছমা। এ ঘটনায় থানায় একটি মামলা রুজু হয় এবং এই মামলার সূত্র ধরে গতকাল বুধবার রাতে আছমা পুলিশের জালে ধরা পরে।

শহরের বিরাহিমপুরের বাসিন্দা সোলায়মান আহমেদ ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, আছমা দীর্ঘদিন ধরে শ্রীমঙ্গলে পতিতাবৃত্তি করে আসছে।দেশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে নারীদের নিয়ে এসে জোর করে পতিতাবৃত্তিতে বাধ্য করানো হয়। এর আগেও কয়েকবার পুলিশের হাতে আটক হলেও ছাড়া পেয়ে আবারও পুরোনো কাজে ফিরে আসে এই নারী।

আরও পড়ুন : নগ্ন ভিডিও উদ্ধারে প্রেমিককে ইনজেকশন, নারী গ্রেপ্তার

হাউজিং এস্টেট এলাকার বাসিন্দা রুহেল আহমেদ আরটিভি নিউজকে বলেন, আছমা তার বসতবাড়ি যৌনপল্লী বানিয়ে ফেলার পাশাপাশি বিভিন্ন আবাসিক হোটেল রিসোর্টে নারী সরবরাহ কাজে লিপ্ত ছিলেন।

অনেকে অভিযোগ  করে  বলেছেন, দিনের পর দিন আছমার এসব অসামাজিক কর্মকাণ্ডের পেছনে এক শ্রেণির  প্রভাবশালীদের হাত রয়েছে।  যারা নিয়মিত মাসোহারা নিয়ে আছমাকে এসব অনৈতিক কাজে প্রশ্রয় দিয়ে থাকেন।

আরও পড়ুন : ঘুরেফিরে দিনদুপুরে তরুণীর সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক, দেখে ফেললো রাজমিস্ত্রী

জেবি