Mir cement
logo
  • ঢাকা শনিবার, ০৮ মে ২০২১, ২৫ বৈশাখ ১৪২৮

গাজীপুর প্রতিনিধি, আরটিভি নিউজ

  ১১ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ২০:১৪
আপডেট : ১১ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ২০:২৬

শান্তির তাবিজ আনতে গিয়ে কবিরাজের দোকানে ধর্ষণের শিকার যুবতী

যুবতী×পোড়াবাড়ী×ধর্ষণ×মারধর×মুদি×সাংসারিক×ঝগড়াঝাটি×তাবিজ×
প্রতিকী ছবি

গাজীপুরের শ্রীপুরে তাবিজ দেওয়ার কথা বলে ডেকে নিয়ে এক যুবতীকে ধর্ষণের অভিযোগে ভণ্ড কবিরাজকে আটক করেছে র‌্যাব-১।

আজ বৃহস্পতিবার দুপুর দুইটায় গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলার বাগমারা থেকে তাকে আটক করা হয়। আটক কবিরাজ মো. শফিকুল ইসলাম (৩২) উপজেলার বাগমারা এলাকার প্রয়াত জহিরুল হকের ছেলে।

গাজীপুর পোড়াবাড়ি ক্যাম্পের কোম্পানি কমান্ডার লে. কমান্ডার আব্দুল্লাহ আল মামুন জানান, গেলো ৭ ফেব্রুয়ারি এক যুবতীকে (২০) তাবিজ দেওয়ার কথা বলে ফুসলিয়ে নিয়ে গিয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে কবিরাজ শফিকুল। ধর্ষণের বিষয়টি বাদী তার নিকটতম আত্মীয়-স্বজনের কাছে বলতে চাইলে বিবাদী তাকে মারধর করে এবং ভয়ভীতি প্রদর্শনসহ মেরে ফেলার হুমকি দেয়। এরপর ভিকটিম গত ১০ ফেব্রুয়ারি গাজীপুর র‌্যাব-১ এর কার্যালয়ে এসে বিবাদীর বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। এরই প্রেক্ষিতে তাকে আটক করা হয়।

আরও পড়ুন: দরজার ফাঁক দিয়ে দেবর দেখলো ভাবিকে ধর্ষণ করছে প্রতিবেশী মোরশেদুল

তিনি আরও জানান, মো. শফিকুল ইসলাম একজন মুদি দোকানদার। ভিকটিমের সাংসারিক বনিবনা না হওয়ায় স্বামী-স্ত্রীর ঝগড়াঝাটি হওয়ার বিষয়ে সে কবিরাজি চিকিৎসার মাধ্যমে তাবিজ দিয়ে ভিকটিমের সংসারে শান্তি ফিরিয়ে দিবে বলে জানায়। ভিকটিম সরল মনে শফিকুলের কথায় তাবিজ নিতে রাজি হয়। পরে তাবিজ আনার জন্য ভিকটিমকে গেলো ৭ ফেব্রুয়ারি তার দোকানে যেতে বলে। ভিকটিম তার দোকানে গেলে বিবাদী ভিকটিমের পারিবারিক সমস্যা দূরীকরণের তাবিজ দেওয়ার কথা বলে ফুসলিয়ে দোকানের পেছনে তার রুমে নিয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে।

আরও পড়ুন: বাংলাদেশে এমন সাপ এর আগে কেউ দেখেনি!

জেবি

RTV Drama
RTVPLUS