logo
  • ঢাকা বুধবার, ০৩ মার্চ ২০২১, ১৮ ফাল্গুন ১৪২৭

নরসিংদী সংবাদদাতা, আরটিভি নিউজ

  ১৬ জানুয়ারি ২০২১, ১৭:০০
আপডেট : ১৬ জানুয়ারি ২০২১, ১৭:৩৫

বিয়েতে রাজি না হওয়ায় প্রেমিকের বাড়িতেই প্রেমিকার আত্মহত্যা

প্রেমিক×লাশ×তরুণী×বিষ×নরসিংদী×হাসপাতাল×বাংলাদেশ×
ছবি সংগৃহীত

নরসিংদীর পলাশ উপজেলায় প্রেমিকের বাড়িতে বিষপান করে জনি বেগম (২১) নামে এক তরুণীর আত্মহত্যার ঘটনা ঘটেছে।

বিষপানের পর ওই নারীকে চিকিৎসার কথা বলে হাসপাতালে রেখে পালিয়ে যায় কথিত প্রেমিক মুঞ্জুর হোসেন (২৩)।

গেলো বৃহস্পতিবার সকালে উপজেলার স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে ওই নারীর মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

এ ঘটনায় আজ শনিবার সকালে পলাশ থানায় নিহত তরুণীর বাবা বাদী হয়ে আত্মহত্যার প্ররোচনার দায়ে কথিত প্রেমিকের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন।

নিহত জনি বেগম গাজীপুরের কালীগঞ্জ উপজেলার নারগানা গ্রামের করিম মোড়লের মেয়ে। অপরদিকে কথিত প্রেমিক মুঞ্জুর হোসেন ঘোড়াশাল পৌর এলাকার ধনারটেক গ্রামের ফজলুল হকের ছেলে।

পুলিশ ও নিহতের পরিবার জানায়, জনি ও মুঞ্জুর পলাশের স্যামরি ডাইং কারখানায় শ্রমিকের কাজ করতো। কাজের সুবাদে তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক হয়। পরে তাদের সম্পর্কটি গভীরে পৌঁছালে জনি মুঞ্জুরকে বিয়ের জন্য চাপ দিতে থাকে। একপর্যায়ে বিয়ে না করলে গেলো বুধবার জনি বিয়ের দাবিতে প্রেমিক মুঞ্জুরের বাড়িতে গিয়ে উঠে। সেখানে মুঞ্জুর হোসেন বিয়ের দাবি প্রত্যাখ্যান করলে একপর্যায়ে জনি বেগম বিষপানে আত্মহত্যা করে।

পলাশ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ মো: নাসিরউদ্দিন জানান, কথিত প্রেমিক মরদেহটি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে রেখে পালিয়ে যায়। পরে মরদেহটির পরিচয় নিশ্চিত হয়ে মামলা নেওয়া হয়। ঘটনার পর থেকে অভিযুক্ত মুঞ্জুর হোসেন পলাতক রয়েছেন।

আরও পড়ুন...

বেতের ঝোপে নিয়ে নারীকে পালাক্রমে গণধর্ষণ

রাজধানীতে পর্নোগ্রাফি বানানোই ছিলো গ্রেপ্তার দম্পতির পেশা

জেবি

RTV Drama
RTVPLUS