logo
  • ঢাকা শনিবার, ১৬ জানুয়ারি ২০২১, ২ মাঘ ১৪২৭

বড়দহ সেতুতে টোল বন্ধের দাবিতে বিক্ষোভ

বিক্ষোভ×গাইবান্ধা×রংপুর×যানবাহন×পরিবহন×বাংলাদেশ×
আরটিভি নিউজ

গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে কৃষিপণ্য পরিবহন, হালকা যানবাহন সাধারণ মানুষের চলাচলের জন্য ব্যবহৃত বড়দহ সেতুতে আগামী সাত জানুয়ারি থেকে উচ্চ হারে আরোপিত টোল বন্ধের দাবিতে মঙ্গলবার এলাকাবাসীর বিশাল মানববন্ধন বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

বিক্ষুব্ধ এলাকাবাসী সেতু অবরোধ করে এসব কর্মসূচি পালন করে। বড়দহ সেতু টোল মওকুফ মহাসড়ক বাস্তবায়ন কমিটি আয়োজিত এই কর্মসূচিতে এলাকার বিপুলসংখ্যক নারী-পুরুষ স্বত:স্ফুর্তভাবে অংশ নেন। এই দাবি বাস্তবায়িত না হলে এলাকাবাসীর পক্ষ থেকে লাগাতার সড়ক অবরোধসহ লাগাতার আন্দোলনের কর্মসূচির আল্টিমেটাম দেয়া হয়।

এলাকাবাসী জানায়, গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার নাকাই, হরিরামপুর রাখালবুরুজ ইউনিয়নের নদী ভাঙন, বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর মানুষেরা কৃষি পণ্যসহ বিভিন্ন পণ্য হালকা যানবাহনে এই সেতুর ওপর দিয়ে পারাপার করে।

এছাড়া গাইবান্ধা জেলাসহ পার্শ্ববর্তী এলাকার লোকজন তাদের ব্যবসা-বাণিজ্যের স্বার্থে হালকা যানবাহন চলাচলে এই সেতু ব্যবহার করে থাকে। এতে সেতু পারাপারে টোল ধার্য করা হলে সমস্ত দরিদ্র কৃষক ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীরা চরম দুর্ভোগের কবলে পড়বে। সেজন্য এই সেতুতে যানবাহন চলাচলের ক্ষেত্রে কোনও টোল না আদায় করার দাবি জানান তারা।

ব্যাপারে গাইবান্ধা- (গোবিন্দগঞ্জ) আসনের সংসদ সদস্য প্রকৌশলী মনোয়ার হোসেন চৌধুরী সড়ক পরিবহন সেতু মন্ত্রণালয়ে এই সেতুতে কোনও টোল ধার্য না করার জন্য ইতোমধ্যে একটি ডিও লেটারও প্রদান করেছেন।

মানববন্ধন চলাকালে বক্তব্য রাখেন, বড়দহ সেতু টোল মওকুফ মহাসড়ক বাস্তবায়ন কমিটির আহ্বায়ক সাখাওয়াত হোসেন বিপ্লব, হরিরাপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জাহিদুল ইসলাম, শ্রমিক নেতা সাইফুল ইসলাম, স্থানীয় সমাজসেবক ব্যবসায়ী রফিকুল ইসলাম রফিক শাহীন ইসলাম।

বক্তারা বলেন, পশ্চিম দিকে চার কিলোমিটার দূরে একই নদীর ওপর নির্মিত বগুড়া-রংপুর মহাসড়কের গোবিন্দগঞ্জ কাটাখালী এবং পূর্বে দুই কিলোমিটার দূরে ওই নদীর ওপরেই সাঘাটা-গোবিন্দগঞ্জ সংযোগকারী ত্রিমোহনী সেতুতে কোনও টোল নেয়া হয় না। অথচ একই ধরনের এই সেতুতে এতদাঞ্চলের জনগণের দীর্ঘদিনের দাবিকে উপেক্ষা করেও জানুয়ারি থেকে উচ্চ হারে টোল ধার্য করা হচ্ছে।

জেবি

RTV Drama
RTVPLUS