logo
  • ঢাকা শনিবার, ২৩ জানুয়ারি ২০২১, ৯ মাঘ ১৪২৭

ধর্ষণের ভিডিও ধারণ করে রাতের পর রাত ছাত্রীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ 

Organized rape of a student, for 1 more month by recording, rtv news
ফাইল ছবি
গণধর্ষণের ভিডিও ফেসবুকে ধারণ করে সেই ভিডিও ফেসবুকে ছড়িয়ে দেওয়ার ভয় দেখিয়ে ১৪ বছরের এক স্কুলছাত্রীকে এক মাস ধরে গণধর্ষণের অভিযোগ ওঠেছে দুই কিশোরসহ তিনজনের বিরুদ্ধে।

সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর উপজেলার পোরজনা ইউনিয়নের পোরজনা গুচ্ছগ্রামে এ ঘটনা ঘটে। স্থানীয় লোকজন এ ঘটনায় ইউসুফ (১৮) নামে এক ভ্যানচালককে আটক করে পুলিশে দিয়েছে।

আজ বুধবার বিকেলে তাকে আটক করে থানায় আনা হয়েছে। ইউসুফ আলী ওই গ্রামের আলীর ছেলে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত দুই কিশোর একই গ্রামের মিন্টু প্রামাণিকের ছেলে জীবন (১৭) ও মানিক হোসেনের ছেলে ফয়সালকে (১৭) পুলিশ গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

এ বিষয়ে ভিকটিমের বাবা জানান, এক মাস আগে স্কুলে যাওয়ার সময় ইউসুফ, জীবন ও ফয়সাল আমার মেয়েকে রাস্তা থেকে ধরে ফয়সালের নির্জন বাড়ির একটি ঘরে নিয়ে ধর্ষণ করে। এ সময় ইউসুফের মোবাইল ফোনে ফয়সাল এ ধর্ষণের ভিডিও চিত্র ধারণ করে।

এরপর ওই ভিডিও ফেসবুকে ছড়িয়ে দেওয়ার ভয় দেখিয়ে গেলো একমাস ধরে তিনজন মিলে প্রায় রাতেই মেয়েটিকে ডেকে নিয়ে পালাক্রমে ধর্ষণ করে আসছিলো।  

গতকাল গভীর রাতে তারা ধর্ষণের জন্য টেনে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলে আমার মেয়ে চিৎকার দেয়। এতে আশপাশের লোকজন ছুটে এসে ইউসুফকে হাতেনাতে আটক করে। লোকজনের উপস্থিতি টের পেয়ে পালিয়ে যায় ফয়সাল ও জীবন।

এ বিষয়ে শাহশাদপুর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আবুল হোসেন বলেন, খবর পেয়ে আমরা ঘটনাস্থলে গিয়ে ইউসুফকে আটক করে থানায় নিয়ে এসেছি। এ ঘটনায় মেয়েটির বাবা বাদী হয়ে শাহাজাদপুর থানায় মামলা করেছেন। বাকি আসামিদের গ্রেপ্তার অভিযান চলছে। এদিকে, এ গণধর্ষণে জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে বিক্ষোভ করেছেন স্থানীয় লোকজন ও স্কুলের শিক্ষার্থীরা।

আরও পড়ুন...

সঙ্গী থাকার পরেও অবৈধ সম্পর্কে জড়ানোর কারণ

জেবি

RTV Drama
RTVPLUS