logo
  • ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২৮ জানুয়ারি ২০২১, ১৪ মাঘ ১৪২৭

ফরিদপুর কুমার নদে ধসে গেছে বসতবাড়ি ও সড়ক 

Homes and roads have collapsed in Faridpur Kumar river
ফরিদপুর কুমার নদে ধসে গেছে বসতবাড়ি ও সড়ক 
ফরিদপুর শহরের ভাটিলক্ষ্মীপুর কুমার নদের বেশির ভাগ অংশে ধস দেখা দিয়েছে। এতে বেশ কয়েকটি বসতবাড়ি ও পানি উন্নয়ন বোর্ডের বেড়িবাঁধের উপর পাকা সড়কের অন্তত তিনশ মিটার অংশ ধসে গেছে। রোববার (২৯ নভেম্বর) ধসে যায় সাতটি বসতবাড়ি। কয়েকদিন আগে ধসে গেছে সড়ক।

এর ফলে ধসে যাওয়া বসতবাড়ির আশেপাশের বাসিন্দাদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে। অন্যদিকে লক্ষ্মীপুর চুনাঘাটা সড়কে সাড়ে তিনশ মিটার অংশ ধসে পড়ায় ওই সড়কে যানবাহন চলাচল বন্ধ রয়েছে।

ধসে পড়া বাড়ির মালিকরা হলো, ভাটিলক্ষ্মীপুর এলাকার কুমার নদের পাড়ের মীর আলমাস, রহিম শেখ, মুনসুর খান, ফিরোজ কবিরাজ, করিম মোল্লা, রুনা বেগম, মোহাম্মদ আলী, জাকির হোসন ও শেখ করিম। 

ক্ষতিগ্রস্ত মীর আলমাস, রুনা বেগম, রহিম শেখরা জানান, অপরিকল্পিতভাবে নদী খনন ও খননকৃত মাটি পাড়ে না ফেলে বিক্রি করে দেওয়ায় এই নদী ভাঙন দেখা দিয়েছে। 

তাদের দাবি, দ্রুত প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিয়ে স্থানীয়দের জানমাল রক্ষায় সংশ্লিষ্ট দপ্তর পদক্ষেপ নিবে।

স্থানীয় বাসিন্দা শাহরিয়ার কাদির রুবেল জানান, বেশকিছু দিন ধরেই কুমার নদের বিভিন্ন অংশে সড়ক ও নদের পাড়ে ফাটল দেখা দেয়। শহরের অম্বিকাপুর পল্লীকবি জসীম উদ্দিনের মাজারের নিকট থেকে লক্ষ্মীপুর চুনাঘাটা পর্যন্ত এই পাকা সড়কটি পাউবোর বেড়িবাঁধের উপর নির্মাণ করা হয়। সম্প্রতি নদের খননের পর সড়কের বিভিন্ন অংশে ধসে গিয়ে যান চলাচল বন্ধ রয়েছে। 

এ বিষয় ফরিদপুর পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী সুলতান মাহমুদ জানান, বসতবাড়ি ধসে খবর পেয়ে সরেজমিন পরিদর্শনে লোক পাঠানো হয়েছে। 
এদিকে ফরিদপুর সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাসুদ রেজা জানান, সরকারিভাবে আমরা ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারকে আর্থিক সহায়তা দেওয়া সিদ্ধান্ত নিয়েছি। ঝুঁকিপূর্ণ বাড়ির বাসিন্দাদের সরে যাওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।
জিএম/পি
 

RTV Drama
RTVPLUS