logo
  • ঢাকা শনিবার, ২৩ জানুয়ারি ২০২১, ৯ মাঘ ১৪২৭

জাহাজ ভাঙা কারখানার অসুস্থ ও পঙ্গু শ্রমিকদের বিনামূল্যে স্বাস্থ্যসেবা

Free health care for sick and crippled workers of shipwrecked factories,
জাহাজ ভাঙা কারখানার অসুস্থ ও পঙ্গু শ্রমিকদের বিনামূল্যে স্বাস্থ্যসেবা
বৈশ্বিক মহামারী করোনাভাইরাসের কারণে অনেক শ্রমিক বেকার হয়ে পড়েছে। ওশি ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে জাহাজ ভাঙা কারখানার অসুস্থ ও পঙ্গু শ্রমিকদেরকে খাদ্য ও সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে। 

আজ শনিবার বিকেল ৪টার সময় উপজেলার ভাটিয়ারীতে ওশি ফাউন্ডেশনের অফিসের সামনে ত্রাণ বিতরণ করা হয়। এ সময় পঙ্গু ও অসুস্থ শ্রমিক ও তাদের পরিবারের সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন। স্বাস্থ্যবিধি মেনে তাদেরকে আগামী ৩ মাসের ত্রাণসামগ্রী বিতরণ করা হয়। খাদ্যসামগ্রীর মধ্যে রয়েছে ১৫ কেজি চাল, ২ কেজি আলু, ২ কেজি ডাল, ১ লিটার তেল, ১ কেজি চিনি, ১ কেজি লবণ, ২৫০ গ্রাম চা পাতা, ২ কেজি আটা, ১ কেজি পেঁয়াজ এবং সুরক্ষা সামগ্রীর মধ্যে রয়েছে সাবান, হ্যান্ডওয়াশ ও মাস্ক।

ওশি ফাউন্ডেশনের প্রোগ্রাম অফিসার সাইফুল মাহমুদের পরিচালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন জাহাজ ভাঙা কারখানার শ্রমিক নেতা ও বাংলাদেশ ফ্রি ট্রেড ইউনিয়ন কংগ্রেসের চট্টগ্রাম জেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক কে এম শহীদুল্লাহ। 

২০১৭ সালে জাহাজ ভাঙা কারখানায় কাজ করতে গিয়ে পা হারানো মোহাম্মদ সোহাগ বলেন, আমার একটি পা নেই। আমি কারো কাছ থেকে কোনোরকম সহযোগিতা পাইনি। ওশি ফাউন্ডেশন আজ আমাকে যে ত্রাণ দিয়েছে তা পেয়ে আমি খুব খুশি। আমার পরিবার আগামী এক মাস চলতে পারবে।

আরেক দুই পা হারোনা শ্রমিক কৃষ্ণ দাশ বলেন, আমি জাহাজ ভাঙা কারখানায় কাজ করতে গিযে আমার দুই পা হারিয়েছি। আমি কোনো কিছু করতে পারি না। এসময় এই ত্রাণ পাওয়ায় আমার পরিবারের জন্য অনেক বেশি উপকার হয়েছে। 

ত্রাণ বিতরণ শেষে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ডাক্তার তপন কুমার দাশের নেতৃত্বে উপজেলার মাদাম বিবিরহাট এলাকায় ৩৫ জন শ্রমিকের মাঝে স্বাস্থ্যসেবা প্রদান করা হয়। এসময় শ্রমিকদের মাঝে বিনামূল্যে প্রয়োজনীয় ওষুধ বিতরণ করা হয়েছে। 

শ্রমিক নেতা আবুল কালাম আজাদ বলেন, শ্রমিকরা আজ খুবই অসহায় তাদের মাঝে আজ ওশি ফাউণ্ডেশন যে ত্রাণ বিতরণ করেছে তা শ্রমিকদের খুবই উপকার হবে। আমরা আশা করব আগামীতেও ওশি ফাউন্ডেশন শ্রমিকদের পাশে দাঁড়াবে।
পি
 

RTV Drama
RTVPLUS