logo
  • ঢাকা রোববার, ২৯ নভেম্বর ২০২০, ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৭

বরগুনায় ইউপি চেয়ারম্যানকে কুপিয়ে জখম

UP chairman hacked and injured in Barguna,
বরগুনার সরিষামুড়ী ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ইমাম হাসান শিপন
পূর্বশত্রুতার জের ধরে বরগুনার বেতাগী উপজেলার ৭নং সরিষামুড়ী ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ও জেলা যুবলীগের যুগ্ম সম্পাদক ইমাম হাসান শিপনকে কুপিয়ে গুরুতর জখম করেছে প্রতিপক্ষরা। 

চেয়ারম্যান শিপনের শ্যালক উজ্জ্বল জানায়, পূর্ব পরিকল্পিতভাবে সাবেক চেয়ারম্যান ইউসুফ শরীফের নেতৃত্বে হত্যার উদ্দেশ্যে এই হামলা করা হয়েছে। ঘটনাস্থলের অদূরে বেতাগী থানার এসআই আলাউদ্দিনসহ পুলিশ সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন। 

সরিষামুড়ী ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান ও বেতাগী উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা ইউসুফ শরীফের সাথে ২০১৬ সালে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে মনোনয়ন নিয়ে বিরোধ সৃষ্টি হয়। এ সময় জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সাধারণ সম্পাদকসহ জেলা নেতৃবৃন্দের উপস্থিতিতে শিপনের নেতৃত্বে ইউসুফ শরীফের উপর হামলা করে জখম করা হয়। নেতৃবৃন্দ এ বিষয় কোনো ব্যবস্থা না নেয়ায় পারবর্তীতে বেতাগীতে একটি সভায় ইউসুফ শরীফকে লাঞ্ছিত করে শিপন। এই ঘটনার জের ধরে আজ এই হামলা হয়েছে।

বেলা তিনটার দিকে ইউনিয়নের কালিকাবাড়ী গ্রামের পনু মিয়ার বাড়ি থেকে বিয়ের অনুষ্ঠান থেকে বের হয়ে রাস্তায় কালিকাবাড়ি মন্দিরের কাছে আসার পরে ৭-৮ জন রামদা-ছেনা নিয়ে শিপনের উপর হামলা করে। কুপিয়ে রাস্তার উপর ফেলে মৃত ভেবে হামলাকারীরা বিনা বাধায় চলে যায়। স্থানীয়রা বরগুনা জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে এলে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে বরিশাল পাঠানো হয়। 

হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, হামলায় শিপনের দুই পায়ের রগ ও ডান হাতের রগ কেটে গিয়ে প্রচুর রক্তক্ষরণ হয়েছে। 

বেতাগী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আরটিভি নিউজকে জানান, এই ঘটনায় আসামিদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে। ঘটনার সময় থানার একজন এসআইসহ পুলিশের উপস্থিতির বিষয় তিনি বলেন, অন্য একটি মামলার দায়িত্ব পালনে সরিষামুড়ী এলাকায় তিনি গিয়েছিলেন। ঘটনার সময় নয়, ঘটনার পরপরই কাকতালীয়ভাবে তিনি ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন।
পি
 

RTVPLUS