ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় স্থানান্তরযোগ্য ইটখলা চালু রাখার  দাবি

প্রকাশ | ২০ নভেম্বর ২০২০, ১৪:০৯

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি, আরটিভি নিউজ
ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখছেন ক্ষতিগ্রস্ত এক ইটখলা মালিক

মহামারী করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে স্থনান্তরযোগ্য প্রায় ৬০টি ইটাখলা ২০২১ সালের জুন পর্যন্ত চালু রাখার দাবিতে সংবাদ সম্মেলন করেছে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার ক্ষতিগ্রস্ত ইটখলা মালিকরা।

আজ শুক্রবার সকালে প্রেসক্লাব মিলনায়তনে জেলা ক্ষতিগ্রস্ত ইটখলা মালিকদের উদ্যোগে এ সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। এতে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন, ইটখলা মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মো. আজিজুল হক।

লিখিত বক্তব্যে উল্লেখ করা হয়, করোনার প্রাদুর্ভাবের কারণে ২৬ মার্চ ২০২০ থেকে লকডাউন থাকায় এমনিতেই ব্যবসা বাণিজ্যে স্থবিরতা দেখা দিয়েছে।

মহামারীর কারণে যথাসময়ে এসব ইটাখোলা স্থানান্তর করা সম্ভব হয়নি। ইতোমধ্যে ইটখলাগুলোতে বিভিন্ন ব্যাংক থেকে ঋণ নিয়ে কোটি কোটি টাকা বিনিয়োগ করা হয়েছে। এ অবস্থায় ইটখলা বন্ধ হলে মালিক ও শ্রমিকরা ক্ষতিগ্রস্ত হবে। এ সময় বিজয়নগর ইটখলা মালিক সমিতির সভাপতি তৌফিকুল ইসলাম ছাড়াও বিভিন্ন ইটখলা মালিকরা উপস্থিত ছিলেন। প্রসঙ্গত, জেলায় প্রায় শতাধিক ইটাখলা রয়েছে।

জেবি