ব্যাংকে ডাকাতির ঘটনায় জড়িতদের ছাড় দেয়া হবে না: ডিআইজি

প্রকাশ | ২০ নভেম্বর ২০২০, ১২:২৯

চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি, আরটিভি নিউজ
সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলছেন খুলনা রেঞ্জের ডিআইজি ড. খন্দকার মহিদ উদ্দিন

চুয়াডাঙ্গার জীবননগরে উথলী সোনালী ব্যাংক শাখায় দিনে দুপুরে ডাকাতির ঘটনায় জড়িতদের  ছাড় দেয়া হবে না বলে জানিয়েছেন খুলনা রেঞ্জের ডিআইজি ড. খন্দকার মহিদ উদ্দিন।

ক্লু ধরে মামলার বিষয়ে অনেক দূর এগিয়েছে পুলিশ। অপরাধী যেই হোক তাকে শাস্তির আওতায় আনা হবে বলেও জানান তিনি।

গতকাল  বৃহস্পতিবার দুপুরে চুয়াডাঙ্গা শিল্পকলা একাডেমি চত্বরে বিট পুলিশিং সভায় যোগদান শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে একথা বলেন তিনি। তিনি জানান, পাঁচ দিন হলো ঘটনাটি ঘটেছে। এরই মধ্যে ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করা আলামতের সূত্র ধরে অনেক দূর এগিয়েছে পুলিশ। খুব শিগগিরিই অপরাধীদের গ্রেপ্তার করে সামনে নিয়ে আসা হবে। অপরাধীদের চিহ্নিত করে গ্রেপ্তার করতে গুরুত্ব দিয়ে কাজ করছে পুলিশের বিভিন্ন বিভাগ। ডিআইজি বলেন, ব্যাংক ডাকাতির ঘটনায় জড়িতদের গ্রেপ্তার এখন সময়ের ব্যাপার। ব্যাংক ডাকাতির ঘটনায় গেরো পাঁচ দিন ধরে পুলিশের বেশ কয়েকটি টিম দিন রাত কাজ করেছেন। তদন্তে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পুলিশের হাতে এসেছে। দুই একদিনের মধ্যেই ডাকাতির সঙ্গে জড়িতদের গ্রেপ্তার করে আইনের আওতায় আনা হবে।

চুয়াডাঙ্গা শিল্পকলা একাডেমি চত্বরে আয়োজিত বিট পুলিশিং সভায় সভাপতিত্ব করেন পুলিশ সুপার জাহিদুল ইসলাম।

প্রধান অতিথি ছিলেন খুলনা রেঞ্জের ডিআইজি ড. খন্দকার মহিদ উদ্দিন বিপিএম (বার)। বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান শেখ সামসুল আবেদিন খোকন, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আসাদুল হক বিশ্বাস, জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মুন্সি আলমগীর হান্নান।

প্রসঙ্গত, গেল রোববার দুপুর একটার দিকে জীবননগরে উথলী সোনালী ব্যাংক শাখায় দিনে দুপুরে ডাকাতির ঘটনা ঘটে। এ সময় হেলমেট ও পিপিই পরিহিত তিন অস্ত্রধারী ব্যাংক কর্মকর্তাদের অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে নগদ আট লাখ ৮২ হাজার ৯০০ টাকা লুট করে পালিয়ে যায় ডাকাতরা।পরে ঘটনার দিন রাতে বাদী হয়ে জীবননগর থানায় অজ্ঞাতনামা তিনজনকে আসামি করে একটি মামলা দায়ের করেছেন ব্যাংকের ব্যবস্থাপক আবু বক্কর সিদ্দিক।

জেবি