logo
  • ঢাকা মঙ্গলবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২০, ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৭

বান্দরবানে হত্যা মামলায় ৬ জনের যাবজ্জীবন

7 people sentenced, to life in murder, rtv news
ছবি সংগৃহীত
বান্দরবানের সদর উপজেলার রাজবিলায় অপহরণের পর হত্যা মামলায় ছয় আসামিকে যাবজ্জীবন এবং দুই লাখ টাকা করে অর্থদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত।

আজ বৃহস্পতিবার বান্দরবানের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আবু হানিফের আদালত এই রায় দেন। আদালত সূত্রে জানা যায়, বান্দরবান সদর উপজেলার রাজবিলা ইউনিয়নের চাইপাড়া থেকে ২০১১ সালের ৬ এপ্রিল ক্যথই মারমা’কে অপহরণ করে নিয়ে যায় দুর্বৃত্তরা। পরের দিন পার্শ্ববর্তী স্থান থেকে অপহৃতের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

এ ঘটনায় নিহতের স্ত্রী হ্লামেনু মারমা বাদী হয়ে সদর থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

এই ঘটনায় দীর্ঘ শুনানি শেষে ১৫ জন সাক্ষী এবং চার আসামির স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দিতে গ্রেপ্তারকৃত পাঁচজনসহ ছয় আসামিকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড এবং প্রত্যেককে দুই লাখ টাকা করে অর্থদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আবু হানিফের আদালত।

এদিকে গ্রেপ্তারকৃত আসামীরা হলেন-উবাচিং মারমা, সাচিং প্রু মারমা, মংহ্লাচিং মারমা, রেজাউল করীম, উমংপ্রু মারমা। অপরজন পলাতক আসামি পুলুশে মারমা। অর্থদণ্ডের অর্থ অর্ধেক রাষ্ট্রীয় কোষাগারে এবং অবশিষ্ট অর্ধেকাংশ ভিকটিমের স্ত্রীকে ক্ষতিপূরণ হিসাবে প্রদানের আদেশ দেয়া হয়।

আইনজীবী মো. ইকবাল করিম জানান, স্থানীয় বাসিন্দার নূরুল কবীরকে অপহরণ করাকে কেন্দ্র করে মধ্যস্থতাকারী হিসাবে মামলার ভিকটিম ক্যথুই চিং মারমাকে অপহরণ করে হত্যা করা হয় ২০১১ সালের এপ্রিল মাসে।

এ ঘটনায় স্ত্রীর দায়ের করা মামলায় আদালত ছয় আসামিকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের এবং প্রত্যেক আসামিকে দুই লাখ টাকা করে অর্থদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন। রায়ে আমরা খুশি। পলাতক আসামিকে গ্রেপ্তার করে সাজা কার্য করে ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানাচ্ছি। ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন বান্দরবান জেলা ও দায়রা জজ আদালতের নাজির বেদারুল আলম।

জেবি

RTVPLUS