বরগুনায় ধর্ষণ মামলায় এক ব্যক্তির যাবজ্জীবন

প্রকাশ | ১৮ নভেম্বর ২০২০, ১৮:৫৩

বরগুনা প্রতিনিধি, আরটিভি নিউজ
আদালত

বরগুনায় কিশোরীকে ধর্ষণ মামলায় আসামি আবদুল মালেককে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডাদেশ দিয়েছেন আদালত।

আজ বুধবার সকাল সাড়ে ১০ টায় বরগুনার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. হাফিজুর রহমান রায় দিয়েছেন। দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি আবদুল মালেক (২৫) বরগুনা উপজেলার সদর ইউনিয়নের আমতলী গ্রামের মৃত আমিন উদ্দিনের ছেলে।

নারী ও শিশু আদালতের বিশেষ পিপি মোস্তাফিজুর রহমান জানিয়েছেন, আমতলী এ কে আদর্শ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির এক ছাত্রীকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ভালবাসার সম্পর্ক গড়ে তোলে দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি আবদুল মালেক।

২০০৯ সালের ৩০ জুন বিয়ের ব্যাপারে কথা আছে বলে ওই ছাত্রীকে খবর দেয়। সরল বিশ্বাসে কথা শুনতে এলে পার্শ্ববর্তী একটি পুকুর পাড়ে বসে কথাবার্তা বলার একপর্যায়ে ইচ্ছার বিরুদ্ধে ছাত্রীকে ধর্ষণ করে দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি মালেক।

এ ঘটনায় দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি মালেকসহ তার বাবা ও মাকে আসামি করে বরগুনার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-১ এ মামলা করা হয়। তদন্ত কর্মকর্তা এস আই মো. আইয়ুব আলী শরীফ দণ্ডপ্রাপ্ত মালেককে আসামি রেখে চার্জশিটে বাবা ও মাকে বাদ দিয়েছে। মামলা চলাকালীন সময় দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি মালেকের বাবা মারা যায়। মামলায় ট্রাইব্যুনালে রাষ্ট্রপক্ষ  আটজন সাক্ষী উপস্থাপন করেন। আসামির পক্ষে একজন সাফাই সাক্ষী দিয়েছে। রাষ্ট্রপক্ষে মামলাটি পরিচালনা করেন এপিপি আশরাফুল আলম শিল্পী এবং আসামিপক্ষে ছিলেন অ্যাডভোকেট আবদুর রহমান নান্টু।

জেবি