logo
  • ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২৬ নভেম্বর ২০২০, ১১ অগ্রহায়ণ ১৪২৭

৯৯৯-এ কল দিয়ে নিজের বিয়ে বন্ধ করলো ৯ম শ্রেণীর ছাত্রী

Map of Pabna
পাবনার মানচিত্র
পাবনা বেড়ায় ৯৯৯ এ কল করে জোর পূর্বক বিয়ে দেওয়ার চেষ্টায় রক্ষা পেল ৯ম শ্রেণীর শিক্ষার্থী জুঁই (১৪)।

রোববার (১৫ নভেম্বর) সকাল ৯টার দিকে বেড়া থানাতে ৯৯৯ কল আসলে কনের বাড়িতে পুলিশের টিম গিয়ে বিয়ে বন্ধ করে দেন।  

পাবনার বেড়া উপজেলার বি বি স্কুলের ৯ম শ্রেণীতে শিক্ষার্থী জুই (১৪) কে পাশের এলাকা বৃশালিকা গ্রামের জানু মোল্লার ছেলে মিজানুর রহমান সাথে জোরপূর্বক বিবাহ দিচ্ছিল মেয়েটির বাবা আমজাদ হোসেন।

বিয়েতে জুঁই রাজি না থাকার বিষয়টি বুঝতে পেয়ে এলাকা বাসি ৯৯৯ এ ফোন করে বিষয়টি থানায় জানান। এরপর পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে বর পক্ষ ও মেয়ের বাবা পালিয়ে যায়।

জুই জানান, আমি আজ সকালেও প্রাইভেট পড়ে আসছি। আমি জানি না কবে আমার বিয়ে ঠিক হলো। বিয়ের সকল আয়োজন  কখন করা হলো জানি না। তবে আমার ইচ্ছার বিরুদ্ধে বিয়ে হলেও আমার কিছুই করার থাকতো না। কিন্তু আমি আরও পড়ালেখা করতে চাই। 

বেড়া থানার এস আই সুলতান আরটিভি নিউজকে বলেন, সকাল ৯টার দিকে ৯৯৯ থেকে কল করে বলা হয় একটি মেয়েকে জোড় করে বাল্যবিয়ে দেয়া হচ্ছে। এ অভিযোগের ভিত্তিতে আমি ফোর্স নিয়ে বেল সাড়ে ১১টায় মেয়ের পৌঁছে দেখি বিয়ের সকল কার্যক্রম প্রায় শেষের দিকে।
কিন্তু পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে বর পক্ষ ও মেয়ের বাবা আমজাদ হোসেন পালিয়ে যায়। তবে আমরা ছেলের চাচা মুন্না মোল্লা  ও মেয়ের মা মঞ্জিলা খাতুনের মুচলেকা নিয়ে বিয়েটি বন্ধ করে দেই। ১৮ বছর বয়স না হওয়া পর্যন্ত বিয়ে না দিতে দুই পরিবারকে পরামর্শ দেই।

জিএম/জিএ 

RTVPLUS