logo
  • ঢাকা শুক্রবার, ২৭ নভেম্বর ২০২০, ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৭

কালিয়াকৈর (গাজীপুর) প্রতিনিধি, আরটিভি নিউজ

  ১২ নভেম্বর ২০২০, ১৭:২৫
আপডেট : ১২ নভেম্বর ২০২০, ১৭:৩৮

শিশুটি কালামের দোকানে গিয়েছিলো কাঁচামাল কিনতে

The child went, to Kalam's shop, rtv news
কালিয়াকৈরে শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেপ্তার কালাম
গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার বক্তারপুর এলাকায় এক শিশুকে ধর্ষণের চেষ্টার ঘটনায় আজ বৃহস্পতিবার সকালে কালিয়াকৈর থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।এ ঘটনায় এক ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করে গাজীপুর জেলহাজতে পাঠানো হয়।

গ্রেপ্তারকৃত ব্যক্তি হলেন, পঞ্চগড়ের দেবীগঞ্জ থানার হাতিডোবা এলাকার মৃত শুকুর মিয়ার ছেলে এছহাক মিয়া ওরফে কালাম (৫০)।

ওই শিশুর পরিবার ও মামলা সূত্রে জানা গেছে, কালাম কালিয়াকৈর উপজেলার বক্তারপুর এলাকার শহীদুল ইসলামের বাড়িতে বাসা ভাড়া থেকে কাঁচামাল ও মুদি দোকান করে আসছিলেন। গেলো ২৯ জুলাই বেলা দুইটার দিকে ওই শিশু ওই ব্যক্তির দোকানে কাঁচামাল কিনতে যায়। পরে তার দোকান বন্ধ দেখতে পেয়ে সে দোকানদারকে ডাকতে তার ভাড়াটে বাসায় ঢুকে। এ সময় একা পেয়ে সুযোগ বুঝে কালাম তাকে জোরপূর্বক ধর্ষণের চেষ্টা চালায়।

এ সময় কৌশলে সেখান থেকে ওই শিশু দৌড়ে বাড়ি চলে যায়। ঘটনাটি জানাজানি হলে স্থানীয় ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ নেতা আলা আমিন গত রোববার ধামাচাপা দেয়ার চেষ্টা চালায়। এ সময় ওই নেতাসহ কয়েকজন অভিযুক্ত কালামকে মারধর ও ২০ হাজার টাকা জরিমানা করেন। ধামাচাপার বিষয়টি জানাজানি হলেও গতকাল বুধবার রাতে অভিযুক্ত কালামকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছে এলাকাবাসী। এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার সকালে ওই শিশুর ভাই ইসমাইল হোসেন বাদী হয়ে কালিয়াকৈর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। পরে দুপরে গ্রেপ্তারকৃত কালামকে গাজীপুর জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।

এ ব্যাপারে স্থানীয় ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের নেতা আলামিন জানান, ওই শিশুর ভাই ও কালামের সঙ্গে ঝগড়ার বিষয়টি মীমাংসা করেছি। ধর্ষণের বিষয়টি জানার পর অভিযুক্ত কালামকে পুলিশের হাতে তোলে দেওয়া হয়েছে।

কালিয়াকৈর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনোয়ার হোসেন চৌধুরী আরটিভি নিউজকে জানান, ধর্ষণের চেষ্টার ঘটনায় থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। এছাড়া অভিযুক্ত কালামকে গ্রেপ্তার করে গাজীপুর জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।

জেবি

RTVPLUS