নেত্রকোনায় গণপিটুনিতে নিহত রবিনের হত্যাকারীদের শনাক্ত করতে পারেনি সিআইডি

প্রকাশ | ১০ নভেম্বর ২০২০, ১৭:৩৪ | আপডেট: ১০ নভেম্বর ২০২০, ১৮:০০

নেত্রকোনা প্রতিনিধি, আরটিভি নিউজ
ছবি সংগৃহীত

২০১৯ সালের ১৮ জুলাই নেত্রকোনার নিউটাউনে ব্যাগে শিশুর কাটা মাথা দেখে পিটিয়ে হত্যা করা হয় রবিন মিয়া নামে এক রিকশা চালককে। ফেসবুকে প্রকাশিত ভিডিও থেকেও কাউকে শনাক্ত করতে পারেনি সিআইডি।

১৮ জুলাই ২০১৯ সালে প্রথমে হত্যা মামলাটি নেত্রকোনা মডেল থানার এসআই রফিকুল ইসলাম ছিলেন, পরে তিনি বদলি হওয়ার পর অধিকতর তদন্তের জন্য মামলাটি সিআইডিতে হস্থান্তর করা হয়।

১৪ মাস পর সিআইডি আদালতে পুলিশ রিপোর্ট প্রদান করেছে। সিআইডির এসআই মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এমদাদুল বাসার আরটিভি অনলাইনকে জানান, রবীন গণপিটুনিতে নিহত হয়েছে সত্য।

তবে কে বা কারা তাকে হত্যা করেছে এ বিষয়ে সুনির্দিষ্ট প্রমাণ পাওয়া যায়নি। গণপিটুনির সাক্ষী পায়নি তারা।

পদ্মা সেতুর তৈরি করতে মাথা লাগবে বলে গুজব ছড়িয়ে পড়ার পর নেত্রকোনায় একজনকে প্রকাশ্যে পিটিয়ে হত্যার মামলায় পুলিশ কাউকে শনাক্ত করতে পারেনি। যদিও সে সময় হত্যার ভিডিও প্রকাশ হয়েছিল ফেইজবুকে।

১৪ মাস তদন্তের পর আদালতে পুলিশের অপরাধ তদন্ত সংস্থা সিআইডি জানিয়েছে, দল বেঁধে পিটিয়ে হত্যা হলেও সাক্ষ্য-প্রমাণ মেলেনি। আসামি করা যায়নি কাউকে।

সেখানে ঘটনা ঘটেছিল দুটি। একটি শিশুর খণ্ডিত মস্তক ব্যাগে বহন করছিলেন এক যুবক। তাকে খুনি ভেবে প্রকাশ্যে পিটিয়ে মেরে ফেলে এলাকাবাসী।

এই ঘটনা নেত্রকোনা মডেল থানায় দুটি মামলা হয়। সিআইডি দাবি করেছে, শিশুটির হত্যাকারী গণপিটুনিতে নিহত যুবক। তবে এই যুবককে কারা হত্যা করেছে, তা বের করতে ব্যর্থ  সিআইডি।

নেত্রকোনা জেলা শহরের নিউটাউন পদ্মপুকুর পাড় এলাকায় শিশুর গলা কাটা মাথা ব্যাগে করে নিয়ে যাওয়ার সময় আটক রবীন নামে এক যুবক গণপিটুনিতে নিহত হয়েছিল।

শিশুর কাটা মাথা ও যুবকের মরদেহ নেত্রকোনা মডেল থানা পুলিশ উদ্ধার করেছিল।

কাটা মাথা শিশুটির নাম সজিব মিয়া (৮)। সে নেত্রকোনা পৌর শহরের কাটলী এলাকার রিকশাচালক রইছ মিয়ার ছেলে। তারা ওই এলাকায় হিরা মিয়ার ভাড়া বাসায় থাকতো। গণপিটুনিতে নিহত যুবক রবীন মিয়া।

পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায়, দুপুর একটার দিকে পৌর শহরের নিউটাউন এলাকায় ব্যাগে করে কাটা মাথা নিয়ে যাচ্ছিল এক যুবক। এ সময় এলাকাবাসীর সন্দেহ হয়।

পরে ব্যাগ খুলে দেহ থেকে বিচ্ছিন্ন এক শিশুর মাথা পাওয়া যায়। এ সময় জনতার গণপিটুনিতে ওই যুবক ঘটনাস্থলেই মারা যায়। এ ঘটনায় সারা শহরে  আতঙ্কের সৃষ্টি হয়েছিল।

জেবি/ এমকে