কাদেরের স্বাক্ষর জাল করে উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতাকে বহিষ্কার

প্রকাশ | ০৭ নভেম্বর ২০২০, ১৭:৪৩ | আপডেট: ০৭ নভেম্বর ২০২০, ১৮:১৫

স্টাফ রিপোর্টার, কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি, আরটিভি নিউজ
ছবি সংগৃহীত

কুড়িগ্রামের উলিপুরে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের স্বাক্ষর জাল করে উপজেলা আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদককে বহিষ্কারের ঘটনায় উলিপুর থানায় জিডি করা হয়েছে। জিডিটি করেছেন উপজেলা আওয়ামী লীগ দপ্তর সম্পাদক প্রভাষক নিমাই সিংহ।

এ ব্যাপারে উলিপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি তদন্ত) রুহুল আমীন থানায় এ নিয়ে জিডির বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। উপজেলা আওয়ামী লীগ সূত্রে জানা যায়, আসন্ন পৌর নির্বাচনকে কেন্দ্র করে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী বেশ কয়েকজন আওয়ামী লীগের নেতাকর্মী বিভিন্নভাবে তাদের প্রচার- প্রচারণা শুরু করেছেন।  তার মধ্যে উপজেলা আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক প্রভাষক নিমাই সিংহ অন্যতম।

জানা গেছে, কোনোরকম কারণ দর্শনো নোটিশ ছাড়াই প্রভাষক নিমাই সিংহকে দল থেকে আজীবনের জন্য বহিষ্কার করা হয়। এতে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সড়ক পরিবহন এবং সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের স্বাক্ষর রয়েছে। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের ঠিকানা সম্বলিত প্যাডে গেলো ১৫ সেপ্টেম্বর সংগঠনের স্বার্থ পরিপন্থী কার্যক্রম ও সাংগঠনিক শৃঙ্খলা ভঙ্গের কারণ উল্লেখ করে এ বহিষ্কারাদেশ দেয়া হয়। গত ৪ নভেম্বর উপজেলা আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদকসহ বিভিন্ন নেতার নামে বহিষ্কারদেশটি ডাকযোগে আসে। ওবায়দুল কাদের স্বাক্ষরিত ওই পত্রে নিমাই সিংহের নামের ভুল ছাড়াও ভাষাগত ভুলসহ অসংখ্য ভুল থাকায় দলের নেতাকর্মীদের সন্দেহ সৃষ্টি হয়। এ কারণে নিমাই সিংহ নিজেই বাদী হয়ে আইনগতভাবে ব্যবস্থা নেয়ার জন্য গেলো বৃহস্পতিবার রাতে থানায় জিডি করেন।

নিমাই সিংহ জানান, দলের সাধারণ সম্পাদকের সই জাল করে এমন কাজ করা ধৃষ্টতার সামিল। সেকারণে আমি থানায় জিডি করেছি। এ ব্যাপারে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা গোলাম হোসেন মন্টু বলেন, নিমাই সিংহ দলের একজন একনিষ্ঠ কর্মী। ওই বহিষ্কারাদেশ পত্রটি সম্পূর্ণ মিথ্যা, ভিত্তিহীন ও বানোয়াট। যারা এ কাজের সঙ্গে জড়িত তাদের আইনের আওতায় এনে বিচার করা উচিত।

জেবি