জীবনের ঝুঁকি নিয়েই চলছে মানুষ ও যানবাহন

প্রকাশ | ১৮ অক্টোবর ২০২০, ১৭:০৯ | আপডেট: ১৮ অক্টোবর ২০২০, ১৯:০৭

টাঙ্গাইল প্রতিনিধি, আরটিভি নিউজ
বেইলি ব্রিজের বেহাল দশা

টাঙ্গাইলের কালিহাতী হতে বড়চওনা পর্যন্ত সড়কটি একটি গুরুত্বপূর্ণ আঞ্চলিক সড়ক। কালিহাতী হতে সখিপুর উপজেলায় যাওয়ার সহজ রাস্তা হওয়ায় এ সড়কের গুরুত্ব বহুগুণ। কিন্তু রাস্তাটি এখন চলা-চলের  প্রায় অযোগ্য বেইলী ব্রিজের জন্য। বিকল্প রাস্তা না থাকায় জীবনের ঝুঁকি নিয়ে চলছে দুই উপজেলার হাজার হাজার জনগণসহ সকল যানবাহন। এতে চরম ভোগান্তিতে পরেছে চলাচলকারীরা। মানুষ যখন নিরুপায় হয় তখন এমন ব্রিজের উপর দিয়েই চলতে হয়। এদিকে স্থানীয় এমপি এবং এলজিএডি প্রকৌশলী দুষছেন ওভারলোডিং মালবাহী ট্রাককে।

টাঙ্গাইলের কালিহাতী হতে বড়চওনা পর্যন্ত সড়কের দূরত্ব প্রায় ৩০ কিলোমিটার। এরমধ্যে কালিহাতী থেকে বহরমপুর বাজার পর্যন্ত দূরত্ব ১০.৪২ কিলোমিটার। আর এই ১০.৪২ কিলোমিটার রাস্তার ৫টি বেইলী ব্রিজই প্রায় চলাচলের অযোগ্য। এই ব্রিজগুলো তৈরি করা হয় ২০০২ সালে বাংলাদেশ জাপান যৌথ প্রজেক্টের মাধ্যমে। এখন এগুলো অনেকটাই চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পরেছে। ফলে যেকোনো সময় ঘটে যেতে পারে বড় ধরনের দুর্ঘটনা। আর এই ভাঙ্গাচুরা ব্রিজ দিয়েই চলাচল করছে দুই উপজেলার কয়েক হাজার মানুষ। কালিহাতী-বড়চওনা, দেওপাড়া,পারখী সড়কে চলাচলকারী ভ্যান, সিএনজি, ইজিবাইক, পিকআপ-ট্রাক পণ্য ও যাত্রীসহ মারাত্মক ঝুঁকি নিয়ে পার হচ্ছে। এতে করে মানুষগুলোর পোহাতে হচ্ছে চরম ভোগান্তি এবং যানবাহন গুলোর নানারকমের যান্ত্রিক সমস্যার সম্মুখীন হতে হচ্ছে। 

এই বিভাগের আরও সংবাদ পড়ুনঃ

পাবনায় আওয়ামী লীগ কর্মীকে কুপিয়ে হত্যা

নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে ইলিশ ধরার অভিযোগে ৪ জন আটক

ঝালমুড়ি খেতে ডেকে ৫ বছরের শিশুকে ধর্ষণ

চাঁপাইনবাবগঞ্জে ট্রাকচাপায় দুই বোনের মৃত্যু

রাস্তা দিয়ে চলাচলকারী জনগণ অভিযোগ করে বলেন ব্রিজগুলো ভাল না হওয়ায় প্রতিনিয়তই তাদের পড়তে হয় নানা বিড়ম্বনায়। প্রাণনাশের ভয়ে যানবাহন থেকে নেমে হেটে ব্রিজ পার হয়ে আবার গাড়িতে উঠতে হয়।

টাঙ্গাইল- ৪ কালিহাতী আসনের সাংসদ সোহেল হাজারী বলেন ,আসলে যে সময় ব্রিজগুলো বানানো হয়েছে সেসময় এরকম লোড গাড়ি চলতো-না। যার ফলে এখন ওভার লোডেড গাড়ি চলে এই ব্রিজগুলোকে একেবারে নষ্ট করে ফেলেছে। 

কালিহাতী এলজিইডি প্রকৌশলী জহির মেহেদী হাসান বলেন, কালিহাতী হতে বড়চওনা সড়কটি একটি গুরুত্বপূর্ণ আঞ্চলিক সড়ক । ব্রিজগুলো যে ঝুঁকিপূর্ণ সে কথা অকপটে স্বীকার করে তিনি আর বলেন, মাঝে মাঝেই জোড়াতালি দিয়ে আমরা ব্রিজগুলো মেরামত করে কোন রকমের চলাচলের উপযোগী করে দেই। তবে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে আশাকরি খুব দ্রুতই কাজ শুরু করা যাবে। 

জিএম/জিএ/এম