smc
logo
  • ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২২ অক্টোবর ২০২০, ৭ কার্তিক ১৪২৭

পদ্মায় নাব্য ও ফেরিঘাট সংকটে দৌলতদিয়ায় ভোগান্তি চরমে

  রাজবাড়ী প্রতিনিধি, আরটিভি নিউজ

|  ১৭ অক্টোবর ২০২০, ১৯:৫৬ | আপডেট : ১৭ অক্টোবর ২০২০, ২০:০৮
Suffering, Daulatdia, ferry crisis, Padma
পদ্মায় নাব্য ও ফেরিঘাট সংকটে দৌলতদিয়ায় ভোগান্তি চরমে
পদ্মায় নাব্য ও ঘাট সঙ্কট এবং শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ি নৌরুটের বাড়তি যানবাহনের চাপে রাজবাড়ীর দৌলতদিয়ায় প্রায় শতাধিক বাস-প্রাইভেট কারসহ পাঁচ শতাধিক পণ্যবাহী ট্রাক নদী পারের অপেক্ষায় সিরিয়ালে আটকা পড়েছে।

অপরদিকে দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটে নাব্যতা ও ফেরি সংকট এবং স্রোতের তীব্রতার কারণে ফেরি চলাচল ব্যাহত হচ্ছে। শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ি নৌরুটে নাব্য সংকটের কারণে দুর্ঘটনা এড়াতে গত দুইদিন ধরে ফেরি পারাপার বন্ধ থাকায় ওই রুটের যানবাহনগুলো পার হতে দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুট আসায় যানবাহনের চাপ বেড়েছে দ্বিগুণ। ফলে দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া উভয় ফেরিঘাটে পারের অপেক্ষায় পাঁচ শতাধিক যাত্রীবাহী ও পণ্যবাহী পরিবহন মিলে প্রায় চার কিলোমিটার জুড়ে যানজট রয়েছে।

শনিবার সকাল থেকেই দৌলতদিয়া-খুলনা মহাসড়কের দৌলতদিয়ায় শতাধিক যাত্রীবাহী বাস, কার ও রাজবাড়ী-কুষ্টিয়া আঞ্চলিক মহাসড়কের গোয়ালন্দ মোড়ে প্রায় চার শতাধিক পণ্যবাহী ট্রাক সিরিয়ালে রয়েছে। আগের দুইদিনের ট্রাকতো রয়েছেই। আর সাপ্তাহিক ছুটির দিন থাকায় নদী পারাপারের গাড়ি প্রবাহ বেশি। তবে বেলা বাড়ার সাথে সাথে ঢাকাগামী সব রকমের গাড়ির চাপ আরও বেড়ে যাবার আশঙ্কা রয়েছে।

দৌলতদিয়া ঘাটে কর্মরত ট্র্যাফিক ইন্সপেক্টর মোঃ রুহুল আমিন জানান, ঘাট সকালে ফাঁকা থাকলেও দুপুরের পর ঢাকাগামী গাড়ির চাপ প্রতিদিনই বেড়ে যায়। ফলে এ ঘাটে বিকেলে ও রাতে যানজট নিত্যদিনের ব্যাপার। তবে ট্র্যাফিক পুলিশ কঠোরভাবে গাড়ির সিরিয়াল নিয়ন্ত্রণ করায় সকল গাড়িই রাতের মধ্যেই পার হয়ে যায়। আর মাওয়া ঘাট বন্ধ থাকায় দুই ঘাটের ডবল গাড়ির চাপে দৌলতদিয়ায় গাড়ির সিরিয়াল লম্বা হচ্ছে।

ট্রাকগুলো দিনের পর দিন সড়কে আটকে থাকায় চরম ভোগান্তিতে পড়েছেন চালকরা। আটকে থাকা স্থানে নেই গোসল, খাবার ও টয়লেট সুবিধা। সময় মতো মালামাল পরিবহন করতে না পারায় বাড়তি খরচ গুণতে হচ্ছে। রাজবাড়ী-কুষ্টিয়া আঞ্চলিক মহাসড়কে আটকে থাকা ট্রাকচালকরা জানান, অনেক ট্রাক দুই-তিন দিনেরও বেশি সময় খোলা রাস্তায় আটকে আছে। দিনের পর দিন রাস্তায় আটকে থেকে তাদের ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে। খরচ বেড়ে যাচ্ছে। সময় মতো মালামাল ডেলিভারি দিতে পারছেন না। এছাড়া যেখানে আটকে আছেন সেখানে নেই গোসল, খাবার ও টয়লেট সুবিধা। বর্তমানে দৌলতদিয়া প্রান্তের চারটি ফেরিঘাটের তিনটি ঘাট দিয়ে যানবাহন পারাপার হচ্ছে। ৫ নম্বর ঘাটের পন্টুন ভেঙে যাওয়ায় তা মেরামতের জন্য বন্ধ রয়েছে। 

বিআইডব্লিউটিসির দৌলতদিয়া ফেরিঘাটের সহকারী ব্যবস্থাপক মাহাবুব হোসেন জানান, ৫ নম্বর ঘাটের মেরামত কাজ চলছে। এছাড়াও শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ি রুটের যানবাহনের চাপ রয়েছে। যে কারণে দৌলতদিয়ায় কিছু পণ্যবাহী ট্রাকের সিরিয়াল তৈরি হয়েছে। তবে কোনো যাত্রীবাহী পরিবহন ও ছোট গাড়ি অগ্রাধিকার ভিত্তিতে তারা পারাপার হচ্ছে। এ রুটে বর্তমানে ১৭টি ফেরি চলাচল করছে। তাও সেই ফেরিগুলো অনেক পুরোনো। পদ্মার তীব্র ঘূর্নায়মান স্রোতের বিপরীতে চলতে পারে না। ফলে ফেরিগুলো প্রায়ই অকেজো হয়ে পড়ছে। 

আরও পড়ুনঃ

ইসরাফিলের আসন পেলেন হেলাল

অবৈধ অনুপ্রবেশের দায়ে ৩ ভারতীয় আটক

বিআইডব্লিউটিসির দৌলতদিয়া ফেরিঘাটের ব্যবস্থাপক আব্দুল্লাহ রনি জানান, পদ্মায় স্রোত ও পাটুরিয়া প্রান্তে নাব্য সঙ্কটে ফেরি চলাচল ব্যাহত হচ্ছে। এছাড়া শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ি নৌরুটের যানবাহনের বাড়তি চাপের কারণে দৌলতদিয়ায় কিছু পণ্যবাহী ট্রাকের সিরিয়াল তৈরি হয়েছে। তবে কোনো যাত্রীবাহী পরিবহন ও ছোট গাড়ি সিরিয়ালে থাকতে হচ্ছে না। অগ্রাধিকার ভিত্তিতে তারা পারাপার হচ্ছে। এ রুটে বর্তমানে ১৭টি ফেরি চলাচল করছে। তবে বাড়তি চাপ সামাল দিতে দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটে ২০-২২টি ফেরি এখন দরকার।
পি
 

RTVPLUS
bangal
corona
দেশ আক্রান্ত সুস্থ মৃত
বাংলাদেশ ৩৯০২০৬ ৩০৫৫৯৯ ৫৬৮১
বিশ্ব ৪,০৩,৮২,৮৬২ ৩,০১,৬৯,০৫২ ১১,১৯,৭৪৮
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
  • দেশজুড়ে এর সর্বশেষ
  • দেশজুড়ে এর পাঠক প্রিয়