এমসি কলেজে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ: চার আসামির ছাত্রত্ব বাতিল

প্রকাশ | ১৩ অক্টোবর ২০২০, ১২:১৮ | আপডেট: ১৩ অক্টোবর ২০২০, ১২:৩৯

সিলেট প্রতিনিধি, আরটিভি নিউজ
ছবি সংগৃহীত

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় সিলেট এমসি কলেজের ছাত্রাবাসে গৃহবধূকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের ঘটনায় প্রধান আসামি সাইফুর রহমানসহ চারজনের ছাত্রত্ব ও সনদ বাতিল করেছে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়। সেইসঙ্গে তাদেরকে এমসি কলেজ থেকে তাদের স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করা হয়েছে।  

এমসি কলেজের অধ্যক্ষ মো. সালেহ আহমদ এ তথ্য নিশ্চিত করে জানান, গতকাল সোমবার জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের সিন্ডিকেট কমিটির বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। মাহফুজ ব্যতীত অন্যরা এমসি কলেজের সাবেক ছাত্র ছিল। সিন্ডিকেট সভায় সভাপতিত্ব করেন জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. হারুন-অর-রশিদ।

জাতীয় বিশ্ববিদ্যায় সূত্র জানায়, ধর্ষণ মামলার আসামি হওয়ায় এমসি কলেজের অধ্যক্ষের লিখিত আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ওই চারজনের ছাত্রত্ব এবং সার্টিফিকেট বাতিল করা হয়েছে। তারা চারজনই এমসি কলেজের ছাত্র ছিলেন।

সনদ বাতিল হওয়া ছাত্ররা হলেন- গৃহবধূকে ধর্ষণের আসামি সাইফুর রহমান, শাহ মাহবুবুর রহমান ওরফে রনি (২৫), রবিউল ইসলাম (২৫) ও মাহফুজুর রহমান (২৫)।

গেলো ২৫ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যায় এমসি কলেজের ছাত্রাবাসে স্বামীকে বেঁধে রেখে এক তরুণীকে ধর্ষণ করেন ছাত্রলীগের কয়েকজন নেতাকর্মী। পরে রাত সাড়ে ১০টায় ওই তরুণীকে উদ্ধার করে ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওসিসিতে ভর্তি করে পুলিশ।

এ ঘটনার পরদিন গৃহবধূর স্বামী এসএমপির শাহপরান থানায় ছয়জনের নামোল্লেখ করে অজ্ঞাত আরও তিনজনকে আসামি করেন। এ ঘটনায় গ্রেপ্তার আট আসামি বর্তমানে কারাগারে রয়েছেন।

জেবি/পি