সিলেটে ধর্ষণ মামলার আসামিদের পক্ষে কোনও আইনজীবী দাঁড়ায়নি

প্রকাশ | ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৪:২০ | আপডেট: ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৪:৫৫

সিলেট প্রতিনিধি, আরটিভি নিউজ
এমসি কলেজে ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেপ্তার সাইফুর ও অর্জুন

সিলেটে এমসি কলেজ ছাত্রাবাসে গণধর্ষণকাণ্ডে আদালতে হাজির করা দুই আসামির পক্ষে কোনও আইনজীবী দাঁড়ায়নি। তবে এই মামলার প্রধান আসামি সাইফুর রহমান ও অর্জুন লস্কর আদালতে নিজেদের নির্দোষ দাবি করেছেন।

আজ সোমবার দুপুর ১২ টার দিকে এই দুই আসামিকে সিলেট মহানগর হাকিম দ্বিতীয় আদালতে হাজির করা হয়।এ সময় বিচাররক সাইফুর রহমানের আদালতে গণধর্ষণ মামলার আসামি সাইফুর ও অর্জুন ঘটনার সঙ্গে জড়িত নয় বলে দাবি করেন। 

তারা বলেন, ‘ আমরা ধর্ষণ করিনি। রাজন, আইনুল ও তারেক ওই গৃহবধূকে ধর্ষণ করেছে। ছাত্রলীগ নেতা তারেক এই মামলার এজাহারভুক্ত আসামি হলেও রাজন ও আইনুল আসামি নয়।

তবে ঘটনার সঙ্গে জড়িত সন্দেহে গতকাল রোববার দিনগত রাত একটার দিকে ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলার কচুয়া নয়াটিলা এলাকা থেকে রাজনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ এ সময় তাকে সহযোগিতা করায় আইনুল নামের আরেক যুবককেও গ্রেপ্তার করা হয়। এখন পর্যন্ত তারেককে গ্রেপ্তার করতে পারেনি পুলিশ।

গেলো শুক্রবার এমসি কলেজে স্বামীর সঙ্গে বেড়াতে গিয়ে গণধর্ষণের শিকার হন এক গৃহবধূ। রাত সাড়ে আটটার দিকে স্বামীর কাছ থেকে ওই গৃহবধূকে জোর করে তুলে নিয়ে ছাত্রাবাসে ধর্ষণ করে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। এ সময় কলেজের সামনে তার স্বামীকে আটকে রাখে দুজন।

এ ঘটনায় ভিকটিমের স্বামী বাদী হয়ে শাহপরান থানায় মামলা করেছেন। মামলায় ছাত্রলীগের ছয় নেতাকর্মীসহ অজ্ঞাতনামা আরও তিনজনকে আসামি করা হয়েছে।

এ পর্যন্ত এজাহারভুক্ত চার আসামিসহ ছয়জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এখনও অধরা আসামি মাহফুজুর রহমান মাসুদ (২৫)। তারেকুল ইসলাম তারেক (২৮)।

আরও পড়ুন:
‘আমরা নই রাজন, আইনুল ও তারেক গৃহবধূকে ধর্ষণ করেছে’
এমসি কলেজে ধর্ষণ: ৫ দিনের রিমান্ডে সাইফুর-অর্জুন
মরদেহবাহী গাড়ি ধরে বারবার ‘ক্ষমা করে দিও’ বলছিলেন অ্যাটর্নি জেনারেলের স্ত্রী

জেবি