মসজিদে বিস্ফোরণ: বেঁচে থাকা ২ জনের অবস্থার উন্নতি

প্রকাশ | ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০, ২২:৩৪ | আপডেট: ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০, ২৩:৩০

আরটিভি নিউজ
ফতুল্লার পশ্চিম তল্লা এলাকায় বায়তুস সালাত জামে মসজিদ

নারায়ণগঞ্জের পশ্চিমতল্লায় মসজিদে বিস্ফোরণে দগ্ধ হয়েছিলেন ৩৭ জন। ইতোমধ্যেই ৩৪  জন মারা গেছেন। শুরুর দিকেই একজন চিকিৎসা নিয়ে বাসায় ফিরে গিয়েছিলেন। বাকি যে দুজন এখনও হাসপাতালে চিকিৎসাধীন, তাদের আইসিইউ থেকে ওয়ার্ডে স্থানান্তর করা হয়েছে। শেখ হাসিনা জাতীয়

বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটের চিকিৎসকরা বলছেন, বেঁচে থাকা দু’জন হলেন পটুয়াখালীর চুন্নু মিয়ার ছেলে মোহাম্মদ কেনান (২৪) এবং নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জের বসিরহাট গ্রামের আবদুল আহাদের ছেলে আমজাদ (৩৭)। অবস্থার উন্নতি ঘটনায় কেনানকে গত শনিবারই ওয়ার্ডে আনা হয়েছিল। এরপর আমজাদকেও আজ বৃহস্পতিবার ওয়ার্ডে আনা হয়।

শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইউনিটের আবাসিক সার্জন ডা. পার্থ শংকর পাল জানান, চিকিৎসাধীন দু’জনের অবস্থা ভালো আছে। তাদের দুই জনকে সাধারণ ওয়ার্ডে ভর্তি রাখা হয়েছে। তবে কেনান ও আমজাদকে ওয়ার্ডে পাঠানো হলেও কেউই পুরোপুরি শঙ্কামুক্ত নয়। তাদের অবস্থা আগের চেয়ে ভালো হলেও আমজাদের দেহের ২৫ শতাংশ এবং কেনানের শরীরের ৩০ শতাংশ পুড়ে গেছে। শ্বাসনালী ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ায় তাদেরও শঙ্কামুক্ত বলা যাচ্ছে না।

গত ৪ সেপ্টেম্বর ফতুল্লার পশ্চিম তল্লা এলাকায় বায়তুস সালাত জামে মসজিদে এশার নামাজের সময় বিস্ফোরণে ৩৭ জন দগ্ধ হয়েছিলেন। এ ঘটনায় একাধিক তদন্ত রিপোর্ট জমা পড়েছে প্রশাসনের কাছে। তবে ঘটনাটির পুরোপুরি তদন্ত এখনো শেষ হয়নি।

কেএফ/জিএ