smc
logo
  • ঢাকা মঙ্গলবার, ২০ অক্টোবর ২০২০, ৫ কার্তিক ১৪২৭

ভাঙনের কবলে দৌলতদিয়া ফেরিঘাট

  রাজবাড়ী প্রতিনিধি, আরটিভি নিউজ

|  ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৭:১৯
ভাঙনের কবলে দৌলতদিয়া ফেরিঘাট
দৌলতদিয়া ফেরিঘাট ।। ফাইল ছবি
পদ্মায় পানি কমার সঙ্গে সঙ্গেই পারে ঘূর্ণায়মান স্রোতের ফলে রাজবাড়ীর গোয়ালন্দের ৩ নম্বর দৌলতদিয়া ফেরিঘাট এলাকায় ফের নদীভাঙন শুরু হয়েছে। ভাঙনের কবলে পড়ে গত ২০১৯ সালের মত দৌলতদিয়া ফেরি ঘাটটি পদ্মায় বিলীন হওয়ার আশঙ্কা তৈরি হয়েছে। বালুভরা বস্তা ফেলে ফেরিঘাট রক্ষার চেষ্টা চালাচ্ছে বিআইডাব্লিউটিএ।

গেল রোববার বিকেল থেকে শুরু হওয়া এ ভাঙনে হুমকির মুখে পড়েছে ৩ নম্বর ফেরিঘাট এবং পাশের সিদ্দিক কাজীরপাড়া গ্রাম। 

অপরদিকে দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটে নাব্যতা ও ফেরি সংকটের কারণে যানবাহন পারাপারে মারাত্মকভাবে ব্যাহত হচ্ছে। শিমুলীয়া-কাঁঠালবাড়ী রুটে ফেরি চলাচল বন্ধ থাকায় ওই রুটের যানবাহনের বাড়তি চাপ পড়েছে দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া ঘাটে।  ফলে মঙ্গলবার দুপুর থেকে দৌলতদিয়া প্রান্তে শতাধিক বাস-প্রাউভেটকার ও দৌলতদিয়া থেকে ১৪ কিলোমিটার দূরে কুষ্টিয়া সড়কে ২ শতাধিক পন্যবাহী ট্রাক আটকা পরে আছে। 

অন্যদিকে মঙ্গলবার পাটুরিয়া ৫ নম্বর ফেরি ঘাটের কাছে জেগে উঠেছে ডুবোচর। ফলে বাধ্য হয়ে ঘাটটি বন্ধ রাখা হয়েছে। তবে ডুবোচর অপসারণের জন্য ড্রেজার বসানো হয়েছে। এ কারণে ঘাটটিতে ফেরি ভিড়তে পারছে না।

বিআইডাব্লিউটিসির দৌলতদিয়া ঘাট অফিস ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গত ২০১৯ সালের অক্টোবর মাসের প্রথম দিকে দৌলতদিয়া ফেরিঘাট এলাকায় ব্যাপক নদীভাঙন শুরু হয়। টানা ১৮ দিন ভাঙন অব্যাহত থাকায় তখন ১, ২ ও ৩ নম্বর ফেরিঘাট বিলীন হয়ে যায়। পাশাপাশি বিলীন হয় পাশের সিদ্দিক কাজীরপাড়া ও মজিদ শেখেরপাড়া গ্রামের পাঁচ শতাধিক পরিবারের বসতবাড়িসহ অসংখ্য গাছপালা। রাজবাড়ী পানি উন্নয়ন বোর্ড ও বিাইডব্লিউটিএ যৌথ প্রচেষ্টায় প্রায় এক কোটি টাকা ব্যায় করে এক মাস নদীতে পানি কমার পর বালুর বস্থা ফেলে মেরামত করে ৩ নম্বর ঘাট চালু করা হলেও ১ ও ২ নম্বর ঘাট দুটি এখনো বন্ধ রয়েছে। 
বিআইডাব্লিউটিএর উপসহকারী প্রকৌশলী মো. শাহ্ আলম জানান, পদ্মায় পানির প্রবল স্রোত ও ঘূর্ণিপাকে দৌলতদিয়া ফেরিঘাট এলাকায় নদীর পারে ভাঙন দেখা দিয়েছে। ভাঙন রোধে সেখানে দ্রুত জিও ব্যাগ ডাম্পিংয়ের কাজ চলছে।

তিনি আরও জানান, দৌলতদিয়া ও পাটুরিয়া ঘাট আধুনিকায়নের প্রকল্প গ্রহণ করা হয়েছে। প্রকল্পের অংশ হিসেবে দৌলতদিয়া ফেরিঘাট থেকে চার কিলোমিটার উজানে এবং দুই কিলোমিটার ভাটিপথে বাঁধ নির্মাণ করা হবে। এতে প্রতিবছর ভাঙনের হাত থেকে দৌলতদিয়া ফেরি ও লঞ্চঘাট স্থায়ীভাবে রক্ষা পাবে।

তবে বিআইডব্লিউটিসি দৌলতদিয়া ঘাটের সহকারী ব্যাবস্থাপক মোঃ মাহাবুবুর রহমান জানান, যাত্রীদের দুর্ভোগ কমাতে বিশেষ ভাবে যাত্রীবাহী যানবাহন ও ব্যক্তিগত যানবাহনগুলোকে আগে পারাপার করা হচ্ছে। আর কয়েকদিন ধরে মালামাল নিয়ে মহাসড়কে আটকে থেকে দুর্ভোগের মধ্যে কাটছে ট্রাক চালকদের।

এসএস

RTVPLUS
bangal
corona
দেশ আক্রান্ত সুস্থ মৃত
বাংলাদেশ ৩৯০২০৬ ৩০৫৫৯৯ ৫৬৮১
বিশ্ব ৪,০৩,৮২,৮৬২ ৩,০১,৬৯,০৫২ ১১,১৯,৭৪৮
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
  • দেশজুড়ে এর সর্বশেষ
  • দেশজুড়ে এর পাঠক প্রিয়