‘রশিদ চাইলে পেঁয়াজ না দেয়ার হুমকি আমদানিকারকদের’ 

প্রকাশ | ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৯:১১ | আপডেট: ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০, ২০:১২

হিলি প্রতিনিধি, আরটিভি নিউজ
ফাইল ছবি

দিনাজপুরের হিলি স্থলবন্দরের পাইকারি বাজারের আড়তগুলোতে রশিদ ছাড়াই বিক্রি করছে পেঁয়াজ। রশিদ ছাড়াই পেঁয়াজ কিনে আতংকের মধ্যে রয়েছে হিলিসহ আশপাশের খুচরা পেঁয়াজ ব্যবসায়ীরা। 

আজ সোমবার (২১ সেপ্টেম্বর) হিলির আড়তগুলোতে সরেজমিন গিয়ে দেখা যায়, রশিদ ছাড়াই চলছে সিন্ডিকেটের মাধ্যমে পেঁয়াজ বিক্রয়। প্রতি কেজি প্রকারভেদে বিক্রি হচ্ছে পাইকারই বাজারে ৩০ থেকে ৭০ টাকা করে। 

কথা হয় কয়েকজন পাইকার এবং পেঁয়াজ কিনতে আসা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে। তারা জানান, আমরা হিলির আড়তগুলো থেকে পেঁয়াজ নিচ্ছি তবে আমদানিকারকরা আমাদের কোনও প্রকার রশিদ দিচ্ছে না। রশিদ চাইলে তারা পেঁয়াজ দিবেন না বলেছে। যার জন্য রশিদ ছাড়াই পেঁয়াজ কিনছি আমরা। 

খুচরা পেঁয়াজ ব্যবসায়ীরা জানান, আমরা খুব আতংকে রয়েছি। গত কয়ে দিন থেকেই আমরা পেঁয়াজ কিনছি হিলির আড়তগুলো থেকে কিন্তু আড়তদাররা আমাদের কোনও রশিদ দিচ্ছে না। যদি উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে আমাদের বাজারে ভ্রাম্যমাণ অভিযান পরিচালনার সময় রশিদ দেখতে চায়, আমরা কোনও রশিদ দেখাতে পারবো না। ইউএনও যদি জরিমানা করে তবে আমরা অনেক ক্ষতির মুখে পরবো। 

এদিকে হাকিমপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার আব্দুর রাফিউল আলমের সঙ্গে আড়তদারদের রশিদ দেয়ার বিষয়টি নিয়ে কথা বলতে চাইলে তিনি ক্যামেরার সামনে কথা বলতে রাজি হয়নি। 

অন্যদিকে বাজার মনিটরিং এবং পণ্য ক্রয়ের রশিদ বিষয়ে দিনাজপুর জেলা প্রশাসক মাহমুদুল আলমের সাথে মুঠোফোনে কথা হলে তিনি জানান, আমরা প্রতিনিয়ত বিভিন্ন উপজেলাতে বাজার মনিটরিং করছি। হাকিমপুর (হিলি) উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে হিলির পেঁয়াজের আড়তগুলো মনিটরিং বিষয়টি দেখবো।  

এনএম/এসএস