smc
logo
  • ঢাকা শনিবার, ৩১ অক্টোবর ২০২০, ১৬ কার্তিক ১৪২৭

স্ত্রীর পরকীয়ার কথা জেনে লাইভে এসে স্বামীর আত্মহত্যা

  যশোর প্রতিনিধি, আরটিভি নিউজ

|  ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১০:০৭ | আপডেট : ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১০:১৬
To find out about the extramarital, affair of a young wife returning from abroad in Sharsha upazila of Jessore, rtv news
প্রতীকী ছবি
যশোরের শার্শা উপজেলায় বিদেশফেরত এক যুবক স্ত্রীর পরকীয়ার কথা জানতে পেরে ফেসবুক লাইভে এসে বিষপানে আত্মহত্যা  করেছে। এর আগে তিনি  একশ’ টাকার একটি স্ট্যাম্পে তার মৃত্যুর জন্য দায়ী ব্যক্তিদের নাম লিখে রেখে গেছে। চাঞ্চল্যকর  মৃত্যুর এ ঘটনা এখন এলাকার মানুষের মুখে মুখে। গতকাল বৃহস্পতিবার যশোর সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু হয়েছে বলে পুলিশ জানায়।

নিহত রফিকুল ইসলাম (৪০) শার্শা উপজেলার নাভারন কাজিরবেড় গ্রামের দিদার হোসেনের ছেলে।

শার্শা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বদরুল আলম খান আরটিভি নিউজকে বলেন,  গেলো বুধবার সন্ধ্যায় ফেইসবুক লাইভে আত্মহত্যার ঘোষণা দিয়ে বিষপান করেন রফিকুল।

পরে তার স্বজনরা উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে যশোর সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বৃহস্পতিবার তার মৃত্যু হয়।

নাভারন সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার জুয়েল ইমরান আরটিভি নিউজকে বলেন, রফিকুল ইসলাম নামের ওই যুবক নাভারন ফজিলাতুন নেছা কলেজে পিয়নের চাকরি করতেন। চাকরি ছেড়ে চলে যান মালয়েশিয়ায়। ১৩ দিন আগে তিনি দেশে ফেরেন।

সহকারী পুলিশ সুপার বলেন, মালয়েশিয়ায় থাকাকালীন সময়ে উপার্জিত সব টাকা তিনি তার স্ত্রীর নামে দেশে পাঠাতেন। রফিকুল দেশে ফেরার পর তার স্ত্রী স্বামীর পাঠানো টাকা আত্মসাৎ করে রফিকুলের সঙ্গে যোগাযোগ বন্ধ করে দেন।

দেশে ফিরে তিনি মানসিকভাবে ভেঙে পড়েন এবং দুশ্চিন্তাগ্রস্ত হয়ে আত্মহত্যার পথ বেছে নেন। আত্মহত্যার আগে রফিকুল ফেইসবুক লাইভে ঘটনাটি বলে যান এবং ১০০ টাকার একটি ননজুডিশিয়াল স্ট্যাম্পে তার স্ত্রীর সহযোগীদের নাম লিখে গেছেন বলেও জানান। এদিকে নিহত রফিকুল বুধবার ১৭ সেপ্টেম্বর রাতে ফেসবুক লাইভে এসে ও ১০০ টাকার স্টাম্পে স্ত্রী মনিরা ইয়াসমিন, শাশুড়ি আয়শা আক্তার, খালা শাশুড়ি রিনা পারভিন, খালু শ্বশুর আব্দুল, মামা শ্বশুর মিঠু ও যশোরের লাইব্রেরি কোচিং সেন্টারের প্রিন্সিপ্যাল হাবিবুর রহমানকে দায়ী করে বিষপানে আত্মহত্যা করেন। সে লাইভে তার বাবাকে বলেন, তার মৃত্যুর পর তার বালিশের নিচে রেখে যাওয়া স্টাম্পের নাম অনুযায়ী অভিযুক্তদের নামে মামলা করতে।

সহকারী পুলিশ সুপার জুয়েল ইমরান বলেন,  মরদেহ ও সব আলামত আমরা সংগ্রহ করেছি। নিহতের স্ত্রী মনিরা খাতুনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পুলিশ হেফাজতে নেওয়া হয়েছে।

আরও পড়ুন: বাসের দরজা-জানালা বন্ধ করে তরুণীকে গণধর্ষণ

জেবি

RTVPLUS
bangal
corona
দেশ আক্রান্ত সুস্থ মৃত
বাংলাদেশ৪০৩০৭৯ ৩১৯৭৩৩ ৫৮৬১
বিশ্ব ৪,৪৩,৫৭,৬৭১ ৩,২৫,০৫,১৫৫ ১১,৭৩,৮০৮
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
  • দেশজুড়ে এর সর্বশেষ
  • দেশজুড়ে এর পাঠক প্রিয়