Mir cement
logo
  • ঢাকা শনিবার, ১২ জুন ২০২১, ২৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮

আরটিভি নিউজ

  ০৫ জুন ২০২১, ২২:২৪
আপডেট : ০৫ জুন ২০২১, ২২:৪০

রোববার যেসব অঞ্চলে ভারী বর্ষণের হতে পারে

ভারী বর্ষণের হতে পারে

আগামীকাল রোববার (০৬ জুন) ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন এলাকায় ভারী থেকে ভারী বর্ষণের সম্ভাবনা রয়েছে বলে শনিবার (০৫ জুন) সন্ধ্যায় বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তর নিশ্চিত করেছে।

রোববার (০৬ জুন) সকাল ছয়টা পর্যন্ত আবহাওয়া পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, ঢাকা, চট্টগ্রাম, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের অনেক জায়গায়, রাজশাহী ও রংপুর বিভাগের কিছু কিছু এবং খুলনা ও বরিশাল বিভাগের দু-এক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা বা ঝোড়ো হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেই সঙ্গে সারা দেশের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারী থেকে ভারী বর্ষণ হতে পারে।

আরও পড়ুন...প্রেমের সম্পর্ক মেনে না নেয়ায় ভাই-বোনের এক রশিতে আত্মহ'ত্যা!

শনিবার (০৫ জুন) আবহাওয়াবিদ ডঃ মুহাম্মদ আবুল কালাম মল্লিক এর স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, পশ্চিমা লঘুচাপের বর্ধিতাংশ পশ্চিমবঙ্গ ও তৎসংলগ্ন বাংলাদেশ এলাকায় অবস্থান করছে, এর একটি বর্ধিতাংশ উত্তর বঙ্গোপসাগর পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে। দক্ষিণ-পশ্চিম মৌসুমী বায়ু মিয়ানমারের ইয়াঙ্গুন উপকূল পর্যন্ত অগ্রসর হয়েছে এবং তা আরও অগ্রসর হওয়ার জন্য আবহাওয়াগত পরিস্থিতি অনুকূলে রয়েছে।

অন্যদিকে আবহাওয়াবিদ মো. শাহীনুল ইসলাম বলেন, দক্ষিণ-পশ্চিম মৌসুমি বায়ু বর্তমানে মিয়ানমারের ইয়াঙ্গুন উপকূলে অবস্থান করছে। আগামী দু-তিন দিনের মধ্যে তা বাংলাদেশের টেকনাফ উপকূলে আসতে পারে। ৭ জুনের পর থেকে বৃষ্টির পরিমাণ বাড়তে থাকবে দেশের দক্ষিণাংশে।

তিনি বলেন, বৃষ্টি প্রথম বাড়বে দক্ষিণাংশে বরিশাল, খুলনা এবং চট্টগ্রামে। পাশাপাশি একই সময়ে বাড়বে ময়মনসিংহ ও সিলেটেও। এরপর সেই বায়ু দেশের মাঝামাঝি চলে আসতে পারে, যা ধীরে ধীরে দেশের উত্তর দিক দিয়ে ভারতে প্রবেশ করবে।

শাহীনুল ইসলাম আরও বলেন, টেকনাফে এলে এক সপ্তাহের মধ্যে পুরো দেশ ছেয়ে যাবে করবে। ধীরে ধীরে দক্ষিণ-পশ্চিম এ মৌসুমি বায়ু বাংলাদেশ পার হয়ে ভারতের মাঝামাঝি একটা স্থানে গিয়ে আটকে থাকে এবং তিন থেকে চার মাস অবস্থান করে সরে যায়। তত দিন পর্যন্ত বাংলাদেশ-ভারত অঞ্চলে বৃষ্টিপাত বেশি হয়। যদিও পুরোপুরি বর্ষার বৃষ্টি শুরু হতে মাসের মাঝামাঝি লেগে যাবে।

এফএ

RTV Drama
RTVPLUS