logo
  • ঢাকা শুক্রবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২০, ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৭

দক্ষ জনবল না থাকায় বিদেশগামী মানুষের সংখ্যা কমেছে: মন্ত্রী

২০২০ সালে সাড়ে সাত লাখ জনশক্তি রপ্তানি হবে মন্ত্রী
জনশক্তি নেয়ার ক্ষেত্রে বিদেশিদের চাহিদায় অনেক পরিবর্তন এসেছে। তারা এখন দক্ষ জনবল চায়। কিন্তু তাদের চাহিদা মতো জনশক্তি আমরা দিতে পারি না। এ কারণে সাম্প্রতিক সময়ে বাংলাদেশ থেকে বিদেশগামী মানুষের সংখ্যা কমেছে। বললেন প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থানমন্ত্রী ইমরান আহমদ।

আজ রোববার নতুন বছরে সরকারের শ্রমবাজার পরিকল্পনা নিয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

প্রবাসী কল্যাণমন্ত্রী বলেন, আগামী একবছরে সাড়ে সাত লাখ জনশক্তি রপ্তানির লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করেছে সরকার। এই সময়ে আরও অন্তত পাঁচ থেকে ছয়টি শ্রমবাজার চালু করা হবে। এছাড়া মালয়েশিয়ার শ্রমবাজার চালু করার উদ্যোগ নেবে সরকার।

প্রবাসী কল্যাণমন্ত্রী বলেন, ২০১৯ সালে বিদেশে যে পরিমাণ কর্মী পাঠানোর লক্ষ্য ছিল তারচেয়ে বেশি কর্মী পাঠানো হয়েছে। গত বছর ৬ লাখ ৫০ হাজার কর্মীকে বিদেশ পাঠানোর লক্ষ্যমাত্রা ছিল কিন্তু সেখানে ৭ লাখ ১ হাজার কর্মীর বিদেশে কর্মসংস্থান হয়েছে।

মালয়েশিয়ার বন্ধ শ্রমবাজার চালুর বিষয়ে মন্ত্রী বলেন, মালয়েশিয়ার শ্রমবাজার চালু হতে খুব বেশি সময় লাগবে না। একটু দেরি হচ্ছে কিছু নীতিগত বিষয় সমন্বয়ের জন্য। তাদের সঙ্গে আমাদের নিয়মিত আলাপ হচ্ছে। আমরা বরাবরই বলে আসছি বাংলাদেশ থেকে কর্মী পাঠানোর জন্য শতভাগ চুক্তি অনুসরণ করতে হবে। আরও কিছু বিষয় নিয়ে আলাপ প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

জেলাভিত্তিক কর্মসংস্থান বিশ্লেষণ করে মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, কর্মী পাঠানোয় সর্বোচ্চ জেলার মধ্যে রয়েছে কুমিল্লা, ব্রাহ্মণবাড়িয়া, চট্টগ্রাম, টাংগাইল ও ঢাকা। এদের মধ্যে সবচেয়ে বেশি কর্মী গেছেন সৌদি আরব। এরপর রয়েছে ওমান, কাতার এবং সিঙ্গাপুর।

এমকে

RTVPLUS
  • জাতীয় এর পাঠক প্রিয়