logo
  • ঢাকা বুধবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২০, ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৭

যোগাযোগের ব্যাপক নেটওয়ার্ক গড়েছি বলে অর্থনীতির চাকা সচল: প্রধানমন্ত্রী

Prime Minister Sheikh Hasina in video conferencing
ভিডিও কনফারেন্সিংয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় আসার পর সারাদেশে যোগাযোগের ব্যাপক নেটওয়ার্ক আমরা গড়ে তুলেছি এবং যার ফলে আজকে আমাদের অর্থনীতির চাকা অনেকটা সচল। আরও অনেক কাজ আমরা শুরু করেছি। সেগুলোও আমরা সম্পন্ন করব ইনশাল্লাহ।

রোববার (২২ নভেম্বর) গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সিংয়ে মাগুরা, যশোর ও নারায়ণগঞ্জে তিনটি সেতু এবং পাবনায় মুক্তিযোদ্ধা রফিকুল আলম বকুল স্বাধীনতা চত্বর উদ্বোধন অনুষ্ঠানে তিনি এই কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আওয়ামী লীগ হঠাৎ করেই কোনোকিছু করেনি। আওয়ামী লীগ যখন বিরোধী দলে তখন থেকে কিন্তু আমাদের পরিকল্পনা ছিল। জাতির পিতা কিন্তু এসব পরিকল্পনা বহু আগেই করে গেছেন। 

তিনি বলেন, গ্রামপর্যায় পর্যন্ত মানুষের যে জীবনমান উন্নত করা যায়, সেটাও আমরা প্রমাণ করেছি। একইসঙ্গে যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়ন, বিদ্যুৎসহ অর্থনীতির চাকাটা সবসময় যেন সচল থাকে। সবদিকে বিশেষভাবে নজর দিয়েই কাজ করার বিভিন্ন পরিকল্পনা গ্রহণ ও বাস্তবায়নের কথা তুলে ধরেন শেখ হাসিনা।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, যশোর, মাগুরা ও নারায়ণগঞ্জের অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ডে গতিশীলতা আনতে নির্মিত হয়েছে তিনটি সেতু। অর্থনৈতিক উন্নয়ন নিশ্চিতে পুরো দেশে যোগাযোগ নেটওয়ার্ক গড়তে কাজ করে যাচ্ছে সরকার। তিন সেতু সব অঞ্চলে আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে অবদান রাখবে। মাগুরার মহম্মদপুর উপজেলায় মধুমতি নদীর ওপর নির্মিত হয়েছে ‘শেখ হাসিনা সেতু’। প্রায় ৬০ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত হয়েছে ৬০০ মিটার দীর্ঘ সেতু। এর মাধ্যমে মাগুরা, নড়াইলসহ আশপাশের এলাকার মানুষের জন্য ফরিদপুর হয়ে ঢাকার সঙ্গে যোগাযোগ এখন আরও সহজ।

অন্যদিকে নারায়ণগঞ্জে শীতলক্ষ্যা নদীর দুই পাড়ের মানুষের যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়নে নির্মিত হয়েছে ৫৭৬ মিটার দীর্ঘ গোলাম দস্তগীর গাজী বীরপ্রতীক সেতু। আর যশোরের অভয়নগরবাসীর স্বপ্নের ভৈরব সেতু। যার দৈর্ঘ্য ৭০২ মিটার।

জিএ/পি

RTVPLUS
  • জাতীয় এর পাঠক প্রিয়