• ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০১৯, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬

ধর্ষণের অপরাধ মীমাংসায় সালিশি বৈঠক কেন আইনগত কর্তৃত্ববহির্ভূত নয়

অনলাইন ডেস্ক
|  ১৬ এপ্রিল ২০১৯, ২১:২১ | আপডেট : ১৬ এপ্রিল ২০১৯, ২২:৩৮
নোয়াখালীর সুবর্ণচরে ধর্ষণ ও আত্মহত্যার ওই ঘটনায় দায়ীদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা নিতে বিবাদীদের নিষ্ক্রিয়তা ও ব্যর্থতা কেন অবৈধ হবে না জানতে চেয়েছে রুল জারি করেছেন আদালত। একই সঙ্গে আদালত জানতে চেয়েছেন ধর্ষণের মতো জঘন্য অপরাধ মীমাংসার নামে তথাকথিত সালিশি বৈঠক কেন আইনগত কর্তৃত্ববহির্ভূত ঘোষণা করা হবে না।

whirpool
আজ মঙ্গলবার এ সংক্রান্ত এক রিটের শুনানি নিয়ে বিচারপতি এফ আর এম নাজমুল আহাসান ও বিচারপতি কে এম কামরুল কাদেরের হাইকোর্ট বেঞ্চ এ রুল জারি করেন।

আদালত জানতে চেয়েছেন সুবর্ণচরের গৃহবধূ পলি আক্তার ধর্ষণের পর বিষপানে আত্মহত্যার ঘটনায় করা মামলাটি ধর্ষণের মামলা না হয়ে আত্মহত্যা প্ররোচনার মামলা কেন হল।

এলজিআরডি সচিব, নোয়াখালীর জেলা প্রশাসক, সুবর্ণচরের ওসি, ওই ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান, স্থানীয় ইউপি সদস্যসহ সংশ্লিষ্টদের রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে।

গেলো ৪ মার্চ আইনজীবী মুনতাসীর মাহমুদ রহমান এ বিষয়ে পত্রিকায় প্রকাশিত প্রতিবেদন যুক্ত করে হাইকোর্টে রিট আবেদনটি করেন।

প্রকাশিত খবরে বলা হয়, নোয়াখালীর সুবর্ণচর উপজেলার মোহাম্মদপুর ইউনিয়নে এক গৃহবধূ বিষপানে আত্মহত্যা করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। তবে পরিবারের দাবি, স্বামীর সঙ্গে স্থানীয় নির্বাচন নিয়ে দ্বন্দ্বের জেরে ধর্ষণের শিকার হয়েছেন গৃহবধূ পলি আক্তার। পরে বিষপান করে আত্মহত্যা করেন তিনি।

ধর্ষণ ও নারী নির্যাতনের ঘটনায় উদ্বেগ জানিয়ে আদালত বলেন, আমাদের নৈতিক অবক্ষয় দেখা দিয়েছে। এ জন্য ছাত্র-শিক্ষক, অভিভাবক, প্রতিষ্ঠানের গভর্নিং বডি ও রাজনীতিবিদদের সচেতন হতে হবে। নৈতিক অবক্ষয়ের কারণেই দেশে ধর্ষণের ঘটনা বৃদ্ধি পেয়েছে। প্রতিদিন পত্রিকার পাতা খুললেই প্রায় ১৫-১৬টা ধর্ষণের ঘটনা দেখতে পাই।

আদালত তখন জানতে চান, ফৌজদারি কোনও মামলা হয়েছে কি না। সেই ইউপি সদস্যকে আসামি করা হয়েছে কি না। ধর্ষণের মামলা না হয়ে আত্মহত্যায় প্ররোচনার মামলা কেন হল?

গৃহবধূর পারিবারিক সূত্র জানায়,  ১ মার্চ রাতে ইউনিয়নের চর মাকসুমুল গ্রামে ধর্ষণের শিকার হন ওই মহিলা। এক সালিশি বৈঠকে রাতেই ধর্ষক আলাউদ্দিনকে মারধর এবং ৬০ হাজার টাকা জরিমানা করে ছেড়ে দেন নুরু মেম্বারসহ এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিরা। ঘটনার পর ২ মার্চ সকালে ওই গৃহবধূ বিষপান করেন। পরে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

জেএইচ

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়