logo
  • ঢাকা সোমবার, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১ আশ্বিন ১৪২৬

ফুটবল খেলার নাম করে তারা প্রতারণা করতো

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট
|  ২৯ নভেম্বর ২০১৮, ১৭:০৮ | আপডেট : ২৯ নভেম্বর ২০১৮, ১৭:১৫
ফুটবল খেলার নাম করে খেলোয়াড় পরিচয় দিয়ে প্রতারণা করতো একটি বিদেশি চক্র। শুধু তাই নয় তারা ব্যবসায়ী ও বিদেশি সংস্থার লোক বলেও দাবি করে প্রতারণা করতেন। আন্তর্জাতিক চক্রের এমন ১৪ সদস্যকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব।

আজ বৃহস্পতিবার সকালে রাজধানীর কারওরান বাজারে র‌্যাব মিডিয়া সেন্টারে এসব কথা জানান র‌্যাব-১ এর অধিনায়ক মো. সারওয়ার বিন কাশেম।

বুধবার রাতে রাজধানীর বসুন্ধরা ও খিলক্ষেত এলাকায় অভিযান চালিয়ে আন্তর্জাতিক প্রতারক চক্রের ১৪ সদস্যকে আটক করে র‌্যাব-১।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন- উগান্ডার মুকি মাইকেল (৩৮), পেট্রিক এমবাজারিয়া (৩২), তানজানিয়ার ক্যাটেরুয়া এমলাভস, সারমেন্টো রেবেকা, নাইজেরিয়ার ইজিকুকওয়া (৩২), ওনকুওরা চুকুনোস (২২), অলুবোওয়াল (২৭), প্রমিস ওনিইনিচেকউকওয়া ইকবোয়াকাবা (২৯), নেইগোনু আমাদি (২৮) ডোনেটস (৩৪), ক্রিস্টিওয়া এনওয়ালুদু (৩৪), ক্যামেরুনের দিদি ন্যায়া (৪৬), কংগোর ইলুংগা ক্রিটিয়ান এবং লাইবেরিয়ার জিওর্যাগ ম্যাথিউ (৩৮)।

তাদেরকে আটকের সময় ২৯টি মোবাইল, ২টি ল্যাপটপ, নগদ ১ লাখ ৫৮৫ টাকা ও ১ হাজার ১৩ ডলার জব্দ করা হয়। এসময় তাদের কারও কাছে বৈধ কোনও ভিসা ছিলনা। তাদেরকে আটকের সময় বাংলাদেশের বিভিন্ন ব্যাংকের বিভিন্ন ব্যক্তির নাম ও তাদের ব্যাংক এ্যাকাউন্ট নাম্বার পাওয়া যায়।

অধিনায়ক মো. সারওয়ার বিন কাশেম বলেন, আটকৃত এ চক্রের সদস্যরা উগান্ডার মার্ক নামে একজনের সহযোগিতায় এদেশে প্রবেশ করে। খেলোয়াড় ও ব্যবসায়ী পরিচয় দিয়ে দেশে প্রবেশ করে তারা প্রতারণা চক্র গড়ে তোলে। তাদের কেউ কেউ আবার আফগানিস্তানের যুদ্ধরত নারী ও পুরুষের পরিচয় কিংবা জাতিসংঘের কর্মকর্তা পরিচয় দিয়ে এদেশের বড় বড় ব্যবসায়ীদের নানা সুযোগ সুবিধা দেয়ার কথা বলে তাদের কাছ থেকে উল্টো অর্থনৈতিক সুযোগ সুবিধা নিত।

 

এমসি / জেএইচ 

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়