logo
  • ঢাকা বুধবার, ২৭ জানুয়ারি ২০২১, ১৩ মাঘ ১৪২৭

বিট কয়েন প্রতারণা, ২৯ এ কোটিপতি রায়হান!

Bitcoin fraud, 29 millionaire Raihan!
বিট কয়েন ও গ্রেপ্তারকৃত রায়হান
বাংলাদেশে নিষিদ্ধ বিট কয়েনের ক্রয়-বিক্রয় ও প্রতারণা চক্রের মূলহোতা মো. রায়হান হোসেন। যার বয়স মাত্র ২৯ বছর। এই বয়সেই সে ব্যবহার করছিলো ১ কোটি ৭ লাখ টাকার দামের গাড়ী। যাকে গাজীপুর জেলার সফিপুর থেকে গ্রেপ্তার করে র‌্যাব। আজ বৃহস্পতিবার (১৪ জানুয়ারি) র‌্যাব-১ এর উপ-অধিনায়ক মেজর গাজী আশিকুর রহমান এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, র‌্যাবের কাছে রায়হানকে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ করেছে। সেই জিজ্ঞাসাবাদে রায়হান জানিয়েছে যে, ২০০৬ সালে কম্পিউটারের উপর প্রশিক্ষণ গ্রহণ করে সে। এরপর ২০১১ সাল থেকে ওয়েবসাইট ডেভেলপমেন্টের কাজ করে আসছিলো। গত বছর অর্থাৎ ২০২০ সালের জুন মাস থেকে সাইদ (২২) নামের এক পাকিস্তানি নাগরিকের সহায়তায় বিট কয়েন প্রতারণা শুরু করেন। এ প্রতারণার মাধ্যমে এ পর্যন্ত হাতিয়ে নিয়েছে ৩৫ হাজার ডলার।

র‌্যাবের বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, রায়হান দীর্ঘদিন ধরে অনলাইনে বাংলাদেশে নিষিদ্ধ বিট কয়েনের লেনদেন করে আসছিল। গতকাল বুধবার (১৩ জানুয়ারি) গোপন সংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাব-১ এর একটি দল সফিপুর দক্ষিণপাড়াস্থ আতর আলীর বাসার নিচ তলা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে। সে বিট কয়েন কেনা-বেচাসহ মানি লন্ডারিং, ক্রেডিট কার্ড হ্যাকিংয়েরও মাস্টারমাইন্ড ছিলো।

এছাড়াও বলা হয়, রায়হানের কাছ থেকে ১৯টি জাতীয় পরিচয়পত্র, ২২টি সিমকার্ড, ২৫ মার্কিন ডলার, ১টি কম্পিউটার, ৩টি মোবাইল ফোন, ১টি ট্রেড লাইসেন্স, ৩টি ভুয়া চালান বই, ১টি টিন সার্টিফিকেট, ১টি ক্যামেরা, ১টি মাইক্রোফোন, ১টি রাউটার, ১টি হেডফোন, ১টি মডেম ও বিভিন্ন ব্যাংকের ৪টি চেক বই জব্দ করা হয়েছে।

রায়হান অবৈধভাবে উপার্জিত তার এসব অর্থ দিয়ে প্রায় ৬ মাস আগে ১ কোটি ৭ লাখ টাকা দিয়ে রাজধানীর তেজগাঁও গুলশান লিংক রোডের একটি শো-রুম থেকে গাড়ি কিনেছে বলেও স্বীকার করেছে র‌্যাবের কাছে। তার বিরুদ্ধে যথাযথ আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে র‌্যাব।

এসআর/কেএফ

RTV Drama
RTVPLUS