logo
  • ঢাকা মঙ্গলবার, ১২ নভেম্বর ২০১৯, ২৮ কার্তিক ১৪২৬

ট্রেন দুর্ঘটনায় চার সদস্যের তদন্ত কমিটি

মৌলভীবাজার প্রতিনিধি
|  ২৪ জুন ২০১৯, ১৫:২৭
মৌলভীবাজারের কুলাউড়ায় দুর্ঘটনায় পড়া উপবন এক্সপ্রেস ট্রেন, ছবি: আরটিভি অনলাইন
মৌলভীবাজারের কুলাউড়ায় দুর্ঘটনায় পড়া উপবন এক্সপ্রেস ট্রেন দুর্ঘটনায় চার সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করেছে রেল কর্তৃপক্ষ।

রেলপথ মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. মোফাজ্জেল হোসেন সোমবার (২৪ জুন) সকাল ৯টার দিকে ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি আরটিভি অনলাইনকে জানান, রেলওয়ে পূর্বাঞ্চলের প্রধান যান্ত্রিক প্রকৌশলী মো. মিজানুর রহমানকে প্রধান করে চার সদস্যবিশিষ্ট এ তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। কমিটিকে তিনদিনের মধ্যে প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে।

উপবন এক্সপ্রেস সেতু ভেঙে দুর্ঘটনায় পড়ে ৪ যাত্রী নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন শতাধিক। নিহতদের মধ্যে তিনজন পুরুষ ও একজন নারী। নিহতদের মধ্যে দুইজন সিলেট ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের নার্সিং তৃতীয়বর্ষের শিক্ষার্থী। অপর দুইজনের পরিচয় জানা যায়নি।

এ ঘটনায় রোববার রাত সাড়ে ১১টা থেকে সারাদেশের সাথে বন্ধ রয়েছে সিলেটের রেল যোগাযোগ। আর দুর্ঘটনা কবলিত ট্রেন উদ্ধার করে লাইন মেরামত বেশ সময় সাপেক্ষ বলে জানিয়েছে রেল বিভাগ।

ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের শাহবাজপুরে সেতু ভেঙে কয়েকদিন ধরে সিলেটের সাথে বাস চলাচল বন্ধ থাকলে ট্রেনই ছিল যাত্রীদের একমাত্র ভরসা। এরই মধ্যে মৌলভীবাজারের বরমচালের বড়ছড়া সেতুর পাশে উপবন ট্রেনটি দুর্ঘটনায় পড়লে এবার বন্ধ হয়ে যায় রেল যোগাযোগও। তবে ট্রেনে অতিরিক্ত যাত্রী থাকায় রোববার রাত সাড়ে ১১টার দিকে দুর্ঘটনায় পড়ে ঢাকাগামী উপবন ট্রেনটি বলে জানান যাত্রীরা।

দুর্ঘটনায় ট্রেনটির একটি বগি বরমচাল বড়ছড়ার সেতু ভেঙে নিচে পড়ে যায় এবং আরো দুটি বগি সেতুর দুই পাশে উল্টে যায়। বাকি দুটি বগি লাইনচ্যুত হয়ে আহত হন প্রায় শতাধিক যাত্রী। এর মধ্যে মারা যান এক পুরুষ ও তিন জন মহিলা যাত্রী। নিহতদের মরদেহ কুলাউড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে রাখা হয়েছে।

ঘটনার পর পরই উদ্ধারে নামে স্থানীয় জনগণ, ফায়ার সার্ভিস, র‌্যাব, পুলিশ ও বিজিবি।

রেলওয়ে বিভাগের এক কর্মকর্তা জানান, লাইন চালু হতে অনেক সময় লাগবে। আহত শতাধিক যাত্রীর মধ্যে ১৮ জনের অবস্থা গুরুতর। তাদেরকে সিলেট ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা চলছে।

পি

 

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়